মাদারীপুরে উপজেলা নির্বাচন নিয়ে সংঘর্ষে আহত ৫০

0
মাদারীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা ও আনারস প্রতীকের সমর্থকদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে আহত হয়েছেন অন্তত অর্ধশত। তাদেরকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
বুধবার (১২ জুন) সকালে সদর উপজেলার পেয়ারপুরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ১১ জনকে আটক করা হয়। ফের সংঘর্ষের আশঙ্কায় এলাকা ও হাসপাতালে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ।
পুলিশ জানায়, সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে। অপরদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আনরস প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাডভোকেট ওবায়দুর রহমান খান। আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী কাজল কৃষ্ণ দে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও মাদারীপুর-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য কৃষিবিদ আফম বাহাউদ্দিনের অনুসারী।
অপরদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী এ্যাডভোকেট ওবায়দুর রহমান খান সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী ও মাদারীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মন্ত্রী শাজাহান খানের ছোট ভাই।
সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে বেশ কিছুদিন ধরে পেয়ারপুর এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এরই ধারাবাহিকতায় সকালে নৌকা ও আনারস প্রতীকের সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।
আগামী ১৮ জুন অনুষ্ঠিত হবে সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। এখানে ১শ’ ১৫টি কেন্দ্রের ৬শ’ ৪৮টি কক্ষে ২ লাখ ৬৬ হাজার ৫শ’ ১৫জন ভোটার তাদের ভোটারধিকার প্রয়োগ করবেন। যার মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৩৫ হাজার ৩শ’ ৩৫ জন ও নারীর ভোটারের সংখ্যা ১ লাখ ৩১ হাজার ১শ’ ৬০ জন।
এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দুইজন, ভাইস-চেয়ারম্যান পদে ৩ জন ও মহিলা-ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
Share.

About Author

Leave A Reply