সোমবার, আগস্ট ২৬

শিরোনাম

বাজেটের ডকুমেন্ট পাওয়া যাবে যেসব ওয়েবসাইটে * প্রধানমন্ত্রীর বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলন কাল * বরগুনায় আগুনে দগ্ধ গৃহবধূকে ঢাকায় স্থানান্তর * মানিকগঞ্জে শিশু ধর্ষণচেষ্টা মামলায় একজনের ৫ বছরের কারাদণ্ড

কুষ্টিয়ায় ঈদকে সামনে রেখে ব্যস্ত কামার শিল্পের কারিগর

0

জাহাঙ্গীর হোসেন জুয়েল কুষ্টিয়া প্রতিনিধি \ ৩ দিন পর পবিত্র ঈদ-উল-আযহা। ঈদ-উল আযহা সামনে রেখে পশু জবাইয়ের সরঞ্জাম প্রস্ততে ব্যস্ত সময় পার করছেন কুষ্টিয়ার কামার শিল্পের কারিগররা। কয়লার দগদগে আগুনে লোহাকে পুড়িয়ে পিটিয়ে তৈরি করছেন ধারালো যন্ত্র। তবে এসব তৈরীতে এখনো আধুনিকতার কোন ছোঁয়া লাগেনি। পুরানো সেকালের নিয়মেই চলছে আগুনে পুড়ে লোহা পিটিয়ে ধারালো যন্ত্র তৈরির কাজ। এরমধ্যে রয়েছে দা, চাকু, ডাসা, বঁটি, হাসুয়া, চাপাতি।

মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসবের অন্যতম হচ্ছে ঈদুল আযহা। আর এই ঈদে মুসলিম ধর্মের অনুসারীরা আল¬াহকে খুশি করতে পশু জবাই করে থাকে। এই পশু জবাইয়ের জন্য প্রয়োজন হয় বিভিন্ন ধরনের সরঞ্জামাদি। কুরবানির পশু জবাই করার বিভিন্ন ধাপে ছুরি, দা, চাপাতি এসব ব্যবহার করা হয়। পশু কুরবানিকে কেন্দ্র করে কামার পল্লীগুলো অনেকটাই ব্যস্ত সময় পার করছে। দগদগে আগুনে গরম লোহায় ওস্তাদ-সার্গেদের পিটাপিটিতে মুখর হয়ে উঠেছে কামার পল্লীগুলো। ঈদে শত শত গরু, ছাগল পশু কুরবানি দেয়া হয়ে থাকে। তাই ঈদের আগেই পশু জবাই করার ছুরি, চামড়া ছাড়ানোর ছুরি, চাপাতি, প¬াস্টিক ম্যাট, চাটাই, গাছের গুঁড়িসহ সবকিছু প্রস্তত রাখতে হয়।
কুষ্টিয়া বড়বাজার ও রাজার হাটে ঘুরে দেখা যায়, দেশি চাপাতি গুলো কেজি হিসেবে বিক্রি হয়ে থাকে। প্রতি কেজি ওজনের চাপাতি, দাও ৫০০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। এছাড়া বিদেশি চাপাতির দাম ৭০০ থেকে ২ হাজার টাকা পর্যন্ত। লোহার তৈরি ছোট ছুরি ১০০ থেকে ১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। জবাই ছুরি মিলছে ৫০০-৬০০ টাকায়। বিভিন্ন সাইজের চাপাতি ৬০০-৮০০ টাকা দরে পাওয়া যাচ্ছে। দাও-বঁটি বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৭০০-৮০০ টাকায়।
ব্যবসায়ীরা জানান, সারাবছর বেচাকেনা কিছুটা কম থাকে, কোন রকম দিন যায়। এই সময়ের জন্য সারা বছর অপেক্ষায় থাকি। ঈদের আগে এক সপ্তাহ ভালো বেচাকেনা হয়। ওই সময় দামও ভালো পাওয়া যায়। তবে এবার এখনো পুরোদমে বিক্রি শুরু হয়নি।
কামার দিলিপ কমর্কার জানায়, এ পেশায় অধিক পরিশ্রম, জীবিকা নির্বাহে কষ্ট হলেও শুধু বাপ-দাদার ঐতিহ্য ধরে রাখতে এ পেশাটিকে এখনও আঁকড়ে ধরে থাকা।
ক্রেতা সালাম জানান, কুরবানির ঈদের আরও কয়েকদিন বাকি তাই আগেই পশু জবাইয়ের সরঞ্জাম কেনার কাজটি সেরে ফেলছেন। তবে অন্য বছরের চেয়ে এবার ছুরি, চাকু, দাও এর দাম একটু বেশি।

Share.

About Author

Leave A Reply