যে কোন পেশায় দক্ষতা দেয় অধিক আয়ের নিশ্চয়তা-এড.টুটুল

2

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
এড.টুটুল আরো বলেন, আমাদের দেশে অনেক স্বল্পশিক্ষিত তরুণ রয়েছে যারা জীবন বদলাতে কাজের খোঁজে বিদেশে পাড়ি জমায়। হাতের কোন কাজ না শিখে গিয়ে মরুভূমিতে ক্ষেত খামারে সবজি চাষের কাজ করে, হোটেলে থালা বাসন ধোয়া, কাপড় ধোয়া, ঘর মোছা ইত্যাদির মত কাজে তারা বাধ্য হয়, সামান্য পারিশ্রমিকের বিনিময়ে। এখন কাজ না জানা লোকদের চাহিদা কমে এসেছে। টেকসই উন্নয়নে নির্মাণ শ্রমিকের ভূমিকা রয়েছে। নির্মাণ কাজে প্রযুক্তির ব্যবহার যেমন কাজকে সহজ করে তেমনি টেকসই করে। আর যে কোন পেশাতেই প্রশিক্ষন মানুষকে দক্ষ করে। প্রশিক্ষণের মাধ্যেমে যে জ্ঞান দক্ষতা অর্জন হবে বাস্তবক্ষেত্রে কাজে লাগাতে হবে। তাহলেই প্রশিক্ষন সার্থক হবে।


বৃহস্পতিবার বিকালে কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে টেকসই অবকাঠামো উন্নয়নে লক্ষ্যে রাজমিস্ত্রি ও নির্মাণ শ্রমিকদের ৫ দিন ব্যাপি প্রশিক্ষণ কর্মসূচির সমাপনী ও সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এড.আমিনুল ইসলাম টুটুল এসব কথা বলেন।


উপজেলা নির্বাহী উপজেলা প্রকৌশলী মো.জাবেদ হোসেনের সভাপতিত্বে কোর্স সমাপনী ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ৭১ টিভির লন্ডন প্রতিনিধি তানভীর আহমেদ, ইউজিডিপি’র প্রকল্প কর্মকর্তা রিপন আচার্য, উপ-সহকারী প্রকৌশলী এ কে এম এরশাদুর রহমান।
উল্লেখ্য, আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের আয়োজনে এবং উপজেলা পরিচালন ও উন্নয়ন প্রকল্প ,স্থানীয় সরকার বিভাগ ও জাপান ইন্টারন্যাশনাল কোঅপারেশন এজেন্সি (জাইকা) সহযোগীতায় আদর্শ সদর উপজেলা প্রকৌশলীর কার্য্যলয় এ প্রশিক্ষন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করেন। এতে ৩০ জন রাজমিস্ত্রিকে প্রশিক্ষন দেওয়া হয়। গত ৩ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া এ প্রশিক্ষন কোর্সের গতকাল সমাপনী অনুষ্ঠিত হয়।

আরো পড়ুন