সীমান্তরক্ষীদের অভিযোগ শুনতে জাফলংয়ে দেব

3

অনলাইন ডেক্স।।

হঠাৎ করেই ভারতীয় বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক দেবকে দেখা গেলো সিলেটের জাফলং সীমান্তে। বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) বিকেলে তিনি মেঘালয়ের ডাউকি ও বাংলাদেশের সিলেটের জাফলং সীমান্ত এলাকার জিরো পয়েন্ট ঘুরে দেখেন। এ সময় তিনি জাফলং জিরো পয়েন্ট এলাকায় টহলরত বিজিবি সদস্যদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

দেবের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজের পোস্ট থেকে জানা যায়, ভারতের কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে ভারতের জওয়ানদের অভাব-অভিযোগ শোনার জন্য একটি কমিটি ট্যুরে বেড়িয়েছেন। সাংসদদের নিয়ে গড়া এই স্ট্যান্ডিং কমিটির অন্যতম সদস্য হলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ দীপক অধিকারী ওরফে নায়ক দেব।

কমিটির অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে নাথুলা পাস, তাওয়াং, ছাড়াও একাধিক সুউচ্চ সীমান্তে থাকা ভারতীয় সেনাদের সাথে দেখা করতে ও তাদের কথা শুনতে তাদের মাঝে উপস্থিত হন দেব। এরই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার তিনি পৌঁছান ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যকার সীমান্ত এলাকা সিলেটের জাফলংয়ে।

সেখানে এসে তোলা দুইটি ভিডিও তিনি তার ফেসবুক পেজে আপলোড করেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘সীমান্ত, কাঁটাতার, দুটো দেশ, এসব কিছুই মনে থাকেনা যখন তাদের সঙ্গে কথা বলি। বাংলাদেশ ভারত সীমান্তে গিয়ে ঠিক এই কথাটাই মনে হল। এসময় তিনি দুই দেশের মঙ্গল কামনা করেন। একই সাথে বিজিবিকে ধন্যবাদ জানান।’

এদিকে দেব সীমান্তে আসার পরপরই বাংলাদেশ ও ভারত উভয় দেশের পর্যটকরা তার সঙ্গে সেলফি তুলতে এবং ফটোসেশন করার জন্য তাকে ঘিরে ধরেন। পরে বিজিবি এবং ভারতীয় বিএসএফ সদস্যদের সহায়তায় ভক্তদের ভিড় এড়িয়ে তিনি সেখান থেকে চলে যান।

দেব প্রবীর নন্দী পরিচালিত ‘অগ্নিশপথ’ সিনেমার মধ্য দিয়ে বাংলা চলচ্চিত্রে পদার্পণ করেন। এ পর্যন্ত তিনি ৪০টিরও অধিক সিনেমায় অভিনয় করেছেন। যার মধ্যে পরাণ যায় জ্বলিয়া রে, চ্যালেঞ্জ, খোকাবাবু, খোকা ৪২০-এর মতো একের পর এক সুপারহিট চলচ্চিত্র উপহার দিয়েছেন। ছবিগুলো বাংলাদেশেও ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়।

আগামী ১৫ নভেম্বর থেকে আউটডোরে শ্যুটিং যাবেন অভিনেতা। এই সিনেমাতে তিনি ছাড়াও রয়েছেন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও শকুন্তলা বড়ুয়া। অতনু রায়চৌধুরীর প্রযোজনায় ও অভিজিৎ সেনের পরিচালনায় আগামী বছরেই বড়পর্দায় আসবে ‘টনিক’। এছাড়াও তাঁর হাতে রয়েছে এসভিএফের নতুন ছবি যার পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন ধ্রুব ব্যানার্জী।

দেব ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে ঘাটাল থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে জয়লাভ করেন।

আরো পড়ুন