কুমিল্লায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযান, পাঁচ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

3

মো. জাকির হোসেন, কুমিল্লা উত্তর প্রতিনিধি।।
কুমিল্লার দেীবদ্বারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তর অভিযান চালিয়ে পাঁচ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে মোট ২২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করা, অতিরিক্ত পেঁয়াজের মূল্য নেওয়া, মেয়াদ উত্তির্ণ ঔষধ বিক্রয় ও মুজুদ রাখা, ওজনে কারচুপিসহ নানা অভিযোগে এ জরিমানা করা হয়। শনিবার সকাল ১১ টায় কুমিল্লা জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আছাদুল ইসলামের নেতৃত্বে দেবীদ্বার সদরের নিউ মার্কেটে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

এসময় অতিরিক্ত মূল্য রাখায় রহুল আমিনের পেয়াজের দোকানকে ৫ হাজার, হাবিবের পেয়াজের দোকানকে ৫ হাজার, মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করায় আবু হানিফের পেয়াজের দোকানকে ২ হাজার, ওজনে কারচুপি করায় নবী মিয়ার মাংসের দোকানকে ২ হাজার এবং মেয়াদ উত্তির্ণ ঔষধ সরবারাহ ও বিক্রয় করায় সরকারি হাসপাতাল গেইট সংলগ্ন মাতৃছায়া ফার্মেসীকে ৮ হাজার টাকা জরিমানাসহ সর্বমোট ২২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা বাজার পরিদর্শক মো. আলমগীর হোসেন, দেবীদ্বার থানার এএসআই মো. রহুল আমিন, উপজেলা ম্যানেজার ফোরামের সভাপতি মো. হাসান ইমাম, উপজেলা মডেল ফারিয়ার সভাপতি মো. মনিরুল ইসলাম বাবুসহ স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীরা।
জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আছাদুল ইসলাম জানান, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

তিনি আরও বলেন, যদি কোন নাগরিক অসাধু ব্যবসায়ী দ্বারা প্রতারিত হয় তাহলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার নির্দিষ্ট আবেদন ফরম রয়েছে, ওই আবেদন ফরমে নির্দিষ্ট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নাম ও অভিযোগের ধরণ লিখে জেলা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয়ে জমা করলে ভোক্তা অধিকার আইন অনুযায়ী অভিযোগকারীকে জরিমানার ২৫ শতাংশ প্রদান করা হবে।

আরো পড়ুন