সোনাগাজীতে গাছের চারা কর্তনের প্রতিবাদ করায় গৃহবধূকে পিটিয়ে আহত, গ্রেফতার ৩

3

জাবেদ হোসাইন মামুন, সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি, ২২ নভেম্বর, ২০১৯খ্রি. শুক্রবারঃ

ফেনীর সোনাগাজীতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে গাছের চারা কর্তনের প্রতিবাদ করায় নবীজান বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করেছে প্রতিপক্ষ ও তাদের ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা।

বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টায় উপজেলার চরদরবেশ ইউনিয়নের দক্ষিণ চরদরবেশ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এসময় প্রতিপক্ষ ও তাদের ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা ৫০-৬০টি গাছের চারা কেটে ফেলেছে। এঘটনায় পুলিশ মাঈন উদ্দিন, অমিত হাসান ও হাফেজ আনোয়ার হোসেন নামে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ, এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্তরা জানায়, দক্ষিণ চরদরবেশ গ্রামের আমিন উল্যাহর ছেলে আহসান উল্যাহ দক্ষিণ চরদরবেশ মৌজার সিএস ১০৯৪ নং, এসএ১০৬৪ নং খতিয়নের ৫শ’ শতক আন্দরে ৭শতক জমির মালিক হিসেবে গাছ লাগিয়ে ভোগ দখলে রয়েছেন। উক্ত জমিতে একই গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে মোবারক হোসেন মালিকানা দাবি করে গত ১১ নভেম্বর ফৌজদারি কার্যবিধির ১৪৫ ধারা মোতাবেক ফেনীর আদালতে একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন। আদালত উক্ত জমিতে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।

আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক গত ১৬ নভেম্বর সোনাগাজী মডেল থানার এসআই মো. ময়নাল হোসেন উক্ত জমিতে শান্তি শৃঙ্খলা বাজায় রাখতে উভয় পক্ষকে লিখিতভাবে নোটিস করেন। নোটিস পেয়ে উক্ত জমি নিজেদের দখলে রয়েছে প্রমাণ করতে মরিয়া হয়ে উঠে মোবারক হোসেন। বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে পূর্বপরিকল্পিতভাবে মোবারক হোসেনের ছেলে হাফেজ আনোয়ার হোসেন, মোহাম্মদীর ছেলে মোশাররফ হোসেন পারভেজ, বোরহান উদ্দিন, মৃত আজমের ছেলে মাঈন উদ্দিন, নিজাম উদ্দিনের ছেলে অমিত হাসানের নেতৃত্বে ১৫-২০ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে আহসান উল্যাহর লাগানো বিভিন্ন প্রজাতির ৫০-৬০টি গাছের চারা কেটে ফেলে। এসময় তার স্ত্রী নবীজান বেগম বাধা দিলে তাকে লোহার রড ও লাঠি দিয়ে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে আহসান উল্যাহ বাদি হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত নামা ১০-১২জনকে আসামি করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন। সোনাগাজী মডেল থানার মামলা নং-২৭, তাং-২১-১১-২০১৯খ্রি.। পুলিশ অভিযান চালিয়ে মাঈন উদ্দিন, অমিত হাসান ও হাফেজ আনোয়ার হোসেন নামে তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছে। সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মঈন উদ্দিন আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আরো পড়ুন