আলবেনিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ২২

1

অনলাইন ডেক্স।।

দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের দেশ আলবেনিয়ায় ৬ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানার পর এখন পর্যন্ত অন্তত ২২ জন নিহত ও ৬৫০ জন আহত হয়েছেন। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এই হতাহতের সংখ্যা নিশ্চিত করেছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার ভোরে দেশটির রাজধানী তিরানাসহ পাশের এলাকাগুলোতে শক্তিশালী এই ভূমিকম্পটি আঘাত হানে।

মার্কিন ভূ-তাত্তিক জরিপ সংস্থা জানিয়েছে, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার ভোর চারটার দিকে আঘাত হানা এই শক্তিশালী ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল ছিল রাজধানী তিরানা থেকে ১৩ কিলোমিটার দূরের বন্দর নহরী ডারেসে। ভূমিকম্পটি ভূ-পৃষ্ঠের আনুমানিক ২০ কিলোমিটার গভীরতায় আঘাত হানে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

গত কয়েক দশকে ইউরোপের এই দেশটিতে এত ভয়াবহভাবে ভূমিকম্প আঘাত হানেনি। গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যাচ্ছে, যত্রতত্র ভব ধসে পড়েছে। বাড়ি, রাস্তা, দেয়াল যেন ধ্বংসস্তুপ। ধ্বংসস্তূপের নিচে অনেকে চাপা পড়েছেন অনেকে। উদ্ধারকারীরা দল পরিস্থিতি সামাল দিতে কাজ করছেন।

আলবেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী এডি রামা এক টুইটার বার্তায় নিহতের পরিবারের জন্য শোক ও সমবেদা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, শেষ পর্যন্ত ধৈর্য্য সহকারে উদ্ধার অভিযান চলবে। ব্যাপক প্রাণহানির পর ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার মানুষের জন্য সরকারের পক্ষে সম্ভাব্য সর্বোচ্চ যা করা সম্ভব তা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

তিনি আরও জানিয়েছেন, ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় প্রতিবেশী ইউরোপীয় দেশের নেতারা সব ধরনের সাহয্য ও সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। ইতোমধ্যে কসভো, ইতালি, ক্রোয়েশিয়া, গ্রিস, ফ্রান্স, রোমানিয়া এবং তুরস্কের জরুরি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা দলের শতাধিক সদস্য ইতোমধ্যে আলবেনিয়ার উদ্ধারকারী দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানিয়েছেন, উদ্ধার অভিযানে দমকল বাহিনীর সঙ্গে সেনাবাহিনীরও কাজ করছে প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওল্টা জাকা বলেছেন, ভূমিকম্পের পর আরও অন্তত আড়াই শতাধিক ‘আফটার শক’ হয়েছে। যার মধ্যে দুটি ছিল ৫ মাত্রার। আহতদের চিকিৎসা চলছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

আরো পড়ুন