শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশনে কুমিল্লায় তথ্য প্রযুক্তির দিগন্ত উন্মোচিত হবে

7

হালিম সৈকত, কুমিল্লা।।
বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তরের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। ২০২১ সালে বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলতে আ’লীগ অঙ্গীকারাবদ্ধ। আ’লীগের নির্বাচনী ইশতিহারেও বিষয়টি স্থান পেয়েছিল গুরুত্বসহকারে। বলা যায় সেই পথে অনেকটাই এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। সেই প্রতিশ্রতির অংশ হিসেবে দেশে গড়ে উঠছে শেখ কামাল হাই-টেক পার্ক।

দেশের ১২টি স্থানে তৈরি হচ্ছে অপূর্ব নির্মাণশৈলীতে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার। কুমিল্লা জেলার লালমাই উপজেলায় দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে এই প্রকল্পের কাজ। মোট ৪০ হাজার বর্গফুট আয়তনের এই সেন্টারটিতে আড়াই হাজার প্রশিক্ষণার্থী ও উদ্যোক্তা সৃষ্টি করতে পারবে। এই প্রকল্পের মেয়াদকাল ধরা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৭ থেকে ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রি. পর্যন্ত।

প্রতিষ্ঠানটির পরামর্শক সংস্থা হচ্ছে বিসিএল এসোসিয়েটেস লি: এবং বাস্তবায়ন করছে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ। কুমিল্লায় স্থানীয় পর্যায়ে কাজটি করছে হামিদ কন্সট্রাকশন লি:।

২৫্ এপ্রিল ২০১৭ইং তারিখে প্রকল্পটি একনেক সভায় অনুমোদিত হয়েছিল। প্রকল্পটির প্রধান উদ্দেশ্য হলো আইটি পার্কের অবকাঠামো স্থাপন। মানব সম্পদ উন্নয়ন। বাংলাদেশের আইটি শিল্পের বিকাশ ও উন্নয়নের জন্য স্থানীয় ও বৈদেশিক কোম্পানীকে আকৃষ্টকরণ। আইটি আইটিইএস বিজনেস প্রোসেস আউটসোর্সিং (বিপিও) হাব তৈরি এবং সর্বোপুরি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা।

গ্রাফিক্স ডিজাইন, এনড্রয়েড মোবাইল অপারেশন, জাভা এস ই-৮ প্রোগ্রামিং, ওয়েব এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট, নেটওয়ার্ক এন্ড সার্ভার এডমিনিস্টেশন, কোর হার্ডওয়ার্ক এন্ড অপারেটিং সিস্টেম, বিপিও, ই-কমার্স, এস কি এল এডমিনিস্টেশন, ওরাকল ইত্যাদি বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে প্রায় ৬০ হাজার লোকের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ও উপ-প্রকল্প পরিচালক নিয়োগ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। প্রকল্পটির প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭৯৬.৪০ কোটি টাকা।

কুমিল্লা ছাড়াও ময়মনসিংহ সদর, জামালপুর সদর, ঢাকার কেরানীগঞ্জ, গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বন্দর, কক্সবাজারের রামু, রংপুর সদর, নাটোরের সিংড়া, সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ, বরিশাল সদর এবং খুলনার কুয়েটে তৈরি হচ্ছে এই হাই-টেক পার্ক। কুমিল্লায় এই প্রকল্পটি নিয়ে আসার পেছনে শক্তিমালী ভূমিকা পালন করেছেন।

গণপ্রজান্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় অর্থমন্ত্রী আ. হ.ম মুস্তফা কামাল এফসিএ (লোটাস কামাল) এমপি। কুমিল্লায় এই প্রকল্পটির কাজ শেষ হলে আইসিটি ক্ষেত্রে এক নব দিগন্তের ক্ষেত্র উন্মোচন হবে।

আরো পড়ুন