‘অক্সিজেনের সাহায্যে শ্বাস নিতেছেন এরশাদ‘

202
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থার কোন উন্নতিই হয়নি। ক্রমে ক্রমে অবস্থার অবনতি হচ্ছে।
গত বুধবার থেকে ঢাকা সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি আছেন বিরোধী দলের এ নেতা। গতকাল দিবাগত রাতে তার অবস্থার অবনতি নিয়ে নানা কথা শোনা গেলেও সোমবার সকালে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তার অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে।
প্রেস সেক্রেটারি ও দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায় জানান, তার (এরশাদের) শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। তাকে অক্সিজেনের সাহায্যে শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে চিকিৎসকেরা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন। তার অবস্থা খুব বেশি ভালো নয়।
এক সূত্রে জানা যায়, গেল কয়েক মাস ধরে এরশাদের শারীরিক অবস্থা ক্রমান্বয়ে খারাপ হয়েছে। সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তির কয়েক মাস আগে সিঙ্গাপুর থেকে চিকিৎসা নিয়ে ফিরেছেন এরশাদ। পরে বিভিন্ন সময় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়েছেন।
রোববার এরশাদের শারীরিক অবস্থার অবনতির খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে যাচ্ছেন তার দলের নেতা ও কর্মীরা। গতকাল রোববার বিকেলে এরশাদের ভাই জিএম কাদের সাংবাদিকদের জানান, সকাল থেকে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। ফুসফুসে পানি চলে এসেছে, ইনফেকশনও দেখা দিয়েছে। পরে শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় তাকে অক্সিজেন দেওয়া হয়।
এদিন বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনে জিএম কাদের জানান, উন্নত চিকিৎসার জন্য এরশাদকে দেশের বাইরে নেওয়ার প্রস্তুতি রয়েছে পরিবারের। তবে এই মুহূর্তে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) চিকিৎসায় আমাদের আস্থা আছে। গত ২০ জানুয়ারি এরশাদকে চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়েছিল।
উল্লেখ্য, গত ৩০ ডিসেম্বরের একাদশ সাধরণ নির্বাচনের আগেই এরশাদ অসুস্থ হয়ে পড়েন। ১০ ডিসেম্বর চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যান। এই কারণে নির্বাচনি প্রচারণায়ও অংশ নিতে পারেননি।
আরো পড়ুনঃ