ইন্সপেক্টর সুমন তালুকদারের ছোট ভাই বিসিএসে সহকারী মহা-হিসাব রক্ষক

এমদাদুল হক সোহাগ।।

91

৩৮তম বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বিসিএসে) নিরীক্ষা ও হিসাব ক্যাডারে সহকারী মহা-হিসাব রক্ষক পদে সুপারিশ পেয়েছেন কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার কৃতি সন্তান মাশফিক-উর-রহমান শাওন। তিনি কুমিল্লা ময়নামতি হাইওয়ে ক্রসিং থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও বর্তমান নারায়নগঞ্জ জেলা ডিবির পরিদর্শক মাহবুবুর রহমান সুমন তালুকদারের ছোট ভাই। তাঁর এই সফলতায় আনন্দিন নিজ পরিবার পরিজন সহ এলাকাবাসী।

মাশফিক-উর-রহমান শাওনের গ্রামের বাড়ি উপজেলার সুন্দলপুর ইউনিয়নের মুদাফর্দি গ্রামে। ওই গ্রামরে বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী খান ও মমতাজ বেগমের কনিষ্ট ছেলে শাওন। সুবজ প্রকৃতি ঘেরা উন্নয়নরে ছোয়া লাগা গ্রামেই বেড়ে উঠেছেন শাওন। ২০০৯ সালে জুরানপুর করিমুন্নেসা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং ২০১১ সালে জুরানপুর আদর্শ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। পরবর্তীতে ভর্তিযুদ্ধে উত্তীর্ণ হয়ে প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজকল্যাণে বিএসএস ও এমএসএস শেষ করে অল্প বয়সেই বিসিএসে প্রথমবার অংশ নিয়েই উত্তীর্ন হয়ে রাষ্ট্রের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন নিরীক্ষা ও হিসাব ক্যাডারে সহকারী মহা-হিসাব রক্ষক পদে সুপারিশ পেয়েছেন।

তাঁর এই সাফল্যে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বড় ভাই নারায়নগঞ্জ জেলা ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর মাহবুবুর রহমান সুমন তালুকদার বলেন, মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে লাখো শুকারিয়া। আমাদের পরিবারের সদস্যদের মনোবাসনা পূর্ণ হয়েছে। আমি শাওনকে সবসময় অনুপ্রেরণা দিয়েছি। সাহস যুগিয়েছি। শাওন এখন দেশ সেবায় সুযোগ পেয়েছে। সে যাতে দেশের মানুষের জন্য কাজ করতে পারে সেজন্য সকলের দোয়া চেয়েছেন তিনি।

মাশফিক-উর-রহমান শাওন বলেন, একজন বিসিএস ক্যাডার হওয়ার মাধ্যমে আমি আমার পরিবারের স্বপ্ন পূরণ করতে পেরে গর্ববোধ করছি। আর এখন প্রজাতন্ত্রের এই গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে সততা এবং নিষ্ঠার সঙ্গে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রার অংশীদার হয়ে দেশকে সেবা দিতে চাই।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!