ইম্প্যাক্ট জীবন তরী ভাসমান হাসপাতাল এখন ঝালকাঠি সুগন্ধা নদীতে

কাজী খলিলুর রহমান, ঝালকাঠি প্রতিনিধি।।

104

ভাসমান হাসপাতাল জীবন তরী এখন ঝালকাঠি সুগন্ধা নদী সংলগ্ন জেলা কালেক্টরেট স্কুল তীরবর্তী এলাকায় অবস্থান করছে। আগামী ৬ মার্চ শনিবার থেকে বেসরকারি সংস্থা ইমপ্যাক্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের পরিচালনাধীন ভাসমান হাসপতালটি এক মাস ব্যাপি জনসাধারণের জন্য চিকিৎসা সেবা প্রদান শুরু করবে।

ভাসমান হাসপাতাল সূত্রে জানা যায় , হাসপাতালটি ১২ শয্যার। চিকিৎসক তিনজন। এর মধ্যে একজন নাক, কান ও গলা বিশেষজ্ঞ, একজন চোখের, একজন অর্থোপেডিকসের। চারজন নার্স, দুজন কর্মকর্তাসহ মোট ৩৫ জন জনবল আছে হাসপাতালে। মুমূর্ষু রোগীদের আনা-নেওয়ার জন্য স্পিডবোট আছে দুটি। এখানে নিয়মিত এক্স-রে, রক্তসহ বেশ কয়েকটি পরীক্ষা করার ব্যবস্থা আছে। স্বল্পমূল্যে চক্ষু রোগের চিকিৎসা ও ছানি অপারেশন , রোগীর চাহিদা অনুযায়ী লেন্স সংযোজন ও ফ্যাকো সার্জারীর ব্যবস্থা , নাক-কান-গলা , জন্মগত মুগুর-পা , বাকা-পা , ঠোঁটকাটা ও তালুকাটা রোগীর চিকিৎসা ও অপারেশন , অর্থপেডিক সমস্যাজনিত শারীরিক ব্যাথা , মাজা ব্যাথাসহ বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা প্রদান করা হবে। এ ছাড়া বিকালঙ্গ ও পঙ্গু রোগীর সহায়ক সামগ্রী প্রদান করা হবে।

এই হাসপাতালে আধুনিক অপারেশন থিয়েটার ও বিশেষজ্ঞ সার্জন দ্বারা অস্ত্রপচার করা হয়। অস্ত্রপচার করা রোগীরা হাসপাতালে থাকবেন এবং তাঁদের খাবার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বহন করবে। যে সকল ছানি রোগীদের অপারেশনের পরে লেন্স বসানো প্রয়োজন হবে তাদের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ৩ হাজার টাকা থেকে ২২ হাজার টাকার প্যাকেজ রয়েছে। তবে অসহায় ও গরীব রোগীদের জন্য বিশেষ ছাড় রয়েছে। এই হাসপাতালের চিকিৎসা নিতে আগ্রহী ব্যক্তিরা ০১৭৮৭৬৭২৩২৩ , ০১৭১৫৩৪৯৯৪০ নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন।

ইম্প্যাক্ট জীবন তরী ভাসমান হাসপাতালের প্রশাসক মো. আলাউদ্দিন জানান , এখানে প্রতিবন্ধিতা রোগ প্রতিরোধে শিক্ষক ,ইমাম ও সরকারি-বেসরকারি স্বাস্থ্যকর্মী এবং পল্লী চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। ৫০টাকার টিকেট কেটে চিকিৎসা নেয়া যাবে তবে। অস্ত্রপচারের পূর্বে বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য রোগীকে আলাদা খরচ বহন করতে হবে।ঝালকাঠিতে অবস্থানকারী ইম্প্যাক্ট জীবন তরী ভাসমান হাসপাতাল-

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!