ইলেকট্রিশিয়ান থেকে নার্সারি মালিক শাহজাহানের ঘুরে দাড়ানোর গল্প

কালীপদ দেবনাথ।।

174
শাহজাহান চতুর্থ শ্রেণি পাস। বয়স সবে আঠারো। অভাব অনটনের সংসার চালাতে ইলেকট্রিক এর কাজ শেখে ইলেকট্রিশিয়ান হিসেবে কাজ করতো। প্রতিদিন দুইশো-তিনশো টাকার জন্য সুদুর ঝাঁকুনিপাড়া থেকে সাইকেল চেপে রেইসকোর্স আসতো, সেখানেই তার কর্মস্থল।
শাহজাহানের প্রতিদিনের নিত্তনৈমত্তিক কাজ হলো সকালে ঘুম থেকে উঠেই সাইকেল চেপে শহরে আসা, এবাড়ি ওবাড়ি কিংবা দোকানে বসে কাজ করা। কখনো মালিকের নির্দেশ কখনো বাড়ির নির্দেশ।
নির্দেশ শুনতে শুনতে ত্যক্তবিরক্ত শাহজাহানের আচমকা বোধোদয় হলো স্বাধীন কিছু করবে। কিন্তু স্বাধীন কিছু করবো বললেইতো আর হয়ে যায়না, তার জন্য লাগে পর্যাপ্ত পুঁজি, ইচ্ছাশক্তি আর অধ্যাবসায়।
শাহজাহানের পুঁজি ব্যতীত বাকি দুটোই ছিল। ইচ্চাশক্তি আর অধ্যাবসায় থাকলে পুঁজি অবশ্য এমনিতেই চলে আসে। শাহজাহান ঋণ নিলো, আদর্শ  সদর উপজেলার ঝাকুনীপাড়া এলাকার গোমতী নদীর  ভূখন্ডে তার চাচার জায়গাটাও পেল।
গোমতীর চরে  জায়গা ২৬ শতক বছরব্যাপী ৭,৫০০ টাকায় ইজারা নিলো। ঋণ নিল ৫০০০০টাকা।
ঋণ টাকায় কিনে আনলো আড়াইশ টি আপেলকুলের কলমচারা, ‘স্কোয়াশ’ স্থানীয়ভাবে চুষা নামে পরিচিত।দেখতে অনকেটা মিষ্টি কুমড়ার মত। তবে চুষা লম্বাটে।
ফল ছাড়াও ফুলের চারা রয়েছে নার্সারী মোরগঝুটি, গোলাপ, বেলি, সূর্যমুখী, গাদাফুলের নানা শ্রেণি, চামেলী, ডালিয়া, রঙন, মাধবী সহ নানারকম ফুলের হাজার হাজার চারা তৈরি করলো। সবজির চারার মধ্যে ক্যাপ্সিকাম, লেটুসপাতা,কাচামরিচ, লাউকুমড়ার ফলন। ফলের চারা আগামীতে চাষ করবে সেরকমই চিন্তা আছে তার।
এই যে দুইশ পঞ্চাশটি আপেলকুল, তাতে এখন ছোট ছোট আপেলের ন্যায় ফল ধরে। তা দেখে শাহজাহানের চোখেমুখে হাসি ফুঁটেছে!
কথা হয়  শাহজাহানের সাথে , নার্সারীতে কাজ করা অবস্থায় শাহজাহান জানান, পাইকাররা এখান থেকে এসে আপেল কুল নিয়ে যায়। এছাড়াও নিজের দুটি ভ্যান আছে। যেগুলোতে নিজের লোক দিয়ে নগরীর বিভিন্ন স্থানে ফুলের চারা বিক্রি করতে পাঠায়। শাহজাহান আরো  জানান, পরীক্ষামূলকভাবে  শুরু করা   আপেল কুলের গাছে ভালো ফলন হয়েছে।   একটিগাছ থেকে ১৫-২০ কেজি আফের কুল পাওয়া যাবে। সে হিসেবে প্রায় ৩৫০০ কেজি আপেলকুল পাবো । বাজারে কেজি দরে ১২০-১৫০ টাকায় বিক্রি করলে কাঙ্খিত মুনাফা অর্জিত হবে।
এ বছর ৪০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে আপেল কুল চাষে।  আপেল কুল বিক্রি শেষে অন্তত ৬০ হাজার টাকা মুনাফা হবে।শাহাজানান জানান, আমি যদি আরো আগে শ্রমটা এখানে বিনিয়োগ করতাম তাহলে আগে অর্থ   অর্থ নৈতিকভাবে স্বচ্ছল হতে পারতাম।
আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!