এন্ড্রু কিশোর সমাহিত হবেন ১৫ জুলাই

অনলাইন ডেক্স।।

41

স্বাধীনতার পর এই দেশের সংগীতে বিরাট এক প্রাপ্তির নাম এন্ড্রু কিশোর। বিশেষ করে এদেশের চলচ্চিত্রে এন্ড্রু কিশোরের কণ্ঠ ছিলো রাজতিলকের মতো। বহু গান তিনি উপহার দিয়েছেন। মুগ্ধ করে রেখেছিলেন কয়েক প্রজন্ম। সেই প্রিয় শিল্পী আজ হারিয়ে গেলেন। ৬ জুলাই সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে চলে গেলেন না ফেরার দেশে।

তার প্রস্থান শোকের সাগরে ভাসিয়ে দিয়েছে সংগীতের অনুরাগীদের। দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ নানা বয়স-পেশার মানুষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শোক প্রকাশ করছেন।

এদিকে শিল্পীর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হতে সময় লাগবে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ১৫ জুলাই সমাহিত করা হবে তাকে। কারণ তার দুই সন্তান সপ্তক ও সংজ্ঞা এখন অস্ট্রেলিয়াতে রয়েছেন। তারা দেশে না ফেরা পর্যন্ত অপেক্ষা করা হবে। করোনা পরিস্থিতিতে সপ্তক ও সংজ্ঞার দেশে ফিরতে কিছুটা সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন এন্ড্রু কিশোরের পরিবার।

আপাতত গোসল সম্পন্ন করে সবরকম প্রস্তুতি নিয়ে এন্ড্রু কিশোরের মরদেহ রাখা হয়েছে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের হিমাঘরে। ১৫ জুলাই অব্দি সেখানেই থাকবেন বাংলা গানের মহারাজ।

এন্ড্রু কিশোরের ভগ্নিপতি জানান, মৃত্যুর আগে এন্ড্রু কিশোর বলে গিয়েছেন তাকে যেন মায়ের পাশেই সমাহিত করা হয়। সেই ইচ্ছানুযায়ী মায়ের পাশেই তাকে সমাহিত করার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গেল বছরের সেপ্টেম্বর মাস থেকে ক্যান্সারে (নন-হজকিন লিম্ফোমা) আক্রান্ত হয়ে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন ছিলেন এন্ড্রু কিশোর। ৯ মাস পর সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন এন্ড্রু কিশোর ১১ জুন রাত আড়াইটার একটি বিশেষ ফ্লাইটে দেশে ফিরেন। তারপর ঢাকার বাসায় বেশকিছু দিন অবস্থান করে শরীরের অবস্থা বিবেচনায় ও কোলাহলমুক্ত থাকতে তিনি গ্রামের বাড়ি রাজশাহী চলে যান। তারপর থেকে সেখানে তার বোনের বাসা সংলগ্ন ক্লিনিকেই ছিলেন।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!