কমোডে সন্তান প্রসব, পাইপ ভেঙে নবজাতককে উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক।।

৮৯

হাসপাতালের টয়লেটের পাইপ ভেঙে এক নবজাতককে উদ্ধার করেছেন বাবা। প্রকৃতির ডাকে টয়লেটে যান এক প্রসূতি কিন্তু প্রসব বেদনায় তিনি টেরই পাননি কখন কমোডে তার সন্তান প্রসব হয়ে গেছে।

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের প্রসূতি ওয়ার্ডে শনিবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে। হাসপাতালের পরিচালক এইচ এম সাইফুল ইসলাম বিষয়‌টি নি‌শ্চিত ক‌রেছেন।

নবজাতকের বাবা নেয়ামত উল্লাহ একজন জেলে ও মা শিল্পী বেগম গৃহিণী। তাদের বাড়ি পিরোজপুর জেলার স্বরূপকাঠির গণমান শেখপাড়া বাজার এলাকায়।

নেয়ামত উল্লাহ বলেন, “আমার গর্ভবতী স্ত্রী গুরুতর অসুস্থ হওয়ায় তাকে শনিবার বরিশাল মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়। ডাক্তার সিজার করার পরামর্শ দেন। বিকালে অপারেশনের জন্য ওষুধ কিনে ফিরে দেখি টয়লেটের সামনে ভিড়। আত্মীয়স্বজনরা কান্নাকাটি করছেন।”

‘লোকজন জানান, আমার স্ত্রী টয়লেটেই সন্তান প্রসব করে দিয়েছে। একজন আমাকে কমোডের মধ্যে হাত দিতে বলেন। আমি পুরো হাত ঢুকিয়েও কিছু পাইনি কিন্তু পাইপের মধ্যে থেকে কান্নার আওয়াজ পাচ্ছিলাম।’

তিনি আরও বলেন, “হাসপাতালের লোকজন জানান ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়া হয়েছে। আমি কারো অপেক্ষা না করে দ্রুত কমোডের পাইপ ভেঙে আমার মেয়েকে বের করে আনি।”

নেয়ামত উল্লাহ বলেন, ‘প্রসব বেদনায় স্ত্রী টেরই পায়নি কখন সন্তান প্রসব হয়ে গেছে। সঙ্গে এক আত্মীয় ছিলেন, তিনি না দেখলে হয়তো মেয়েকে আর পেতাম না।’

হাসপাতালের পরিচালক জানান, নবজাতকটি শিশুদের বিশেষ সেবা ইউনিটে (স্ক্যানু) ও তার মা প্রসূতি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের চিকিৎসায় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!