করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন রোধে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্টে নেই বাড়তি ব্যবস্থা

সালাহউদ্দিন বকুল, হিলি প্রতিনিধি।।

৮৭

বিশ্বব্যাপী আতঙ্ক ছড়ানো করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের সংক্রামন রোধে দেশের বিভিন্ন স্থলবন্দরে বাড়তি সতর্কতামুলক ব্যবস্থা জারি করা হলেও দিনাজপুরের হিলি ইমিগ্রেমন চেকপোষ্টে এধরনের কোন নির্দেশনা এখনো জারি করা হয়নি।পুর্বের নিয়মেই করোনার সংক্রামন রোধে নেওয়া পদক্ষেপেই চলছে ইমিগ্রেশনের কার্যক্রম। অনেক যাত্রীকে স্বাস্থপরিক্ষা ছাড়াই চলাচল করতে দেখা গেছে।

মঙ্গলবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্টে গিয়ে দেখা যায় করোনা সংক্রামন রোধে ইমিগ্রেশন চেকপোষ্টে স্থাপিত মেডিকেল টিমের সদস্যরা তখন পর্যন্ত কেউ তাদের বুথে আসেননি। এদিকে ওই সময়ের মধ্যে ভারত থেকে পাসপোর্টে এক যাত্রী দেশে এসে স্বাস্থ্য পরিক্ষা ছাড়াই ইমিগ্রেশনের কার্যক্রম সম্পুর্ন করে দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেন ধরার জন্য দ্রুত ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট এলাকা ত্যাগ করেন। যদিও এর পরে ইমিগ্রেশন চেকপোষ্টে কর্তব্যরত মেডিকেল টিমের এক সদস্য আসেন। পরে ওই যাত্রীর কোন প্রকার স্বাস্থ্য পরিক্ষা নীরিক্ষা ছাড়াই তার হেলথ কার্ডে স্বাক্ষর প্রদান করতে দেখা গেছে তাকে। এদিকে কোন প্রকার পরিক্ষা নীরিক্ষা ছাড়াই যাত্রী যাওয়া আসা করাই করোনার নতুনধরনসহ করোনা সংক্রামনের আশংকা করছেন স্থানীয়রা।

হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্টে অবস্থিত মেডিকেল টিমের দায়ীত্বরত স্বাস্থ্যসহকারী সোহেল রানা বলেন, করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন নিয়ে কোন নির্দেশনা এখন পর্যন্ত আমরা পাইনি। তবে আমরা পুর্বের নিয়মেই ভারত ফেরত যাত্রীদের জ্বর শর্দি, কাশি এমন নমুনা যদি কারো দেখা দেয় তাহলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্থানান্তর করা হচ্ছে। সেখানে কাওকে সন্দেহজনক হলে তার করোনা টেস্ট করা হচ্ছে সেক্ষেত্রে পজিটিভ হলে তাকে হাসপাতালে কোয়ারেন্টিনে রাখা হচ্ছে।

হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট ওসি সেকেন্দার আলী বলেন, করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের বিষয়ে আমরা এখন পর্যন্ত কোন নির্দেশনা পাইনি। তবে হিলি দিয়ে যেহেতু এখনো বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাত্রী যাওয়া শুরু হয়নি শুধুমাত্র অনুমোদন স্বাপেক্ষে ভারত থেকে যাত্রীদের আসা চালু রয়েছে। তাই পুর্বের নিয়মেই ভারত থেকে আসা যাত্রীদের ৭২ঘন্টার মধ্যে করোনা পরিক্ষার সনদ নিয়ে দেশে প্রবেশ করতে হবে। এরপর ইমিগ্রেশ চেকপোষ্টে প্রাথমিক স্বাস্থ্যপরিক্ষা ও স্কানার দিয়ে পরিক্ষার পর কারো তাপমাত্রা বেশী হলে তার করোনা টেস্ট স্বাপেক্ষে তার নিজ বাড়িতে বিশ্রামের পদ্ধতি চালু রয়েছে। এই পদ্ধতি অবলম্বন করেই আমাদের কার্যক্রম চলে আসছে।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!