করোনায় দেশের বিপদে নার্সের দায়িত্ব নিলেন অভিনেত্রী

অনলাইন ডেস্ক।।

31
করোনায় বিপর্যস্ত ভারত। দিনদিন বাড়ছে এই ভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা। বিশেষ করে দেশটির মহারাষ্ট্রে করোনার আক্রমণ বেশি৷দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে নার্সের ভূমিকায় অবতীর্ণ হলেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শিখা মালহোত্রা।
তিনি বেশ সুপরিচিত ও প্রতিষ্ঠিত একজন অভিনেত্রী। চাইলেই করোনায় লকডাউনের এই সময়টা গৃহবন্দী হয়ে কাটাতে পারতেন। কিন্ত মানবিকতার টানে তিনি কাঁধে তুলে নিয়েছেন সেবার মহান দায়িত্ব। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন সাংঘাতিক রকমের ছোঁয়াচে এই রোগে আক্রান্তদের।
এই মহূর্তে মুম্বাইয়ের যোগেশ্বরী মুম্বাই বালাসাহেব ঠাকরে ট্রমা হাসপাতালে নার্স হিসাবে কর্মরত রয়েছেন শিখা। স্বেচ্ছাসেবক হিসাবে কাজ করছেন এই অভিনেত্রী।
অভিনয় দক্ষতার পাশাপাশি শিখার নার্সিং ডিগ্রিও রয়েছে। জানা গেছে, দিল্লির বর্ধমান মহাবীর মেডিকেল কলেজ এবং সফদরজং হাসপাতাল থেকে নার্সিং কোর্স করেছেন শিখা। এবার তিনি তার সেই শিক্ষাকেই মানুষের জন্য ব্যবহার করছেন।
অভিনেত্রী নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, ‘অনেকেই হয়ত জানেন না আমি বর্ধমান মহাবীর মেডিকেল কলেজ এবং সফদরজং হাসপাতাল থেকে নার্সিং-এ বি.এ কমপ্লিট করেছি। টানা ৫ বছর এটা নিয়েই পড়েছি। আর আমি একজন রেজিস্টার নার্স। আমি আমার কাজের প্রশংসা সবসময় পেয়েছি। তবে এখন আমার মনে হয়েছে দেশের এই পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে দাঁড়ানো দরকার। সেকারণই মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে আমি কাজে যোগ দিয়েছি। আপনাদের আশীর্বাদের আমার প্রয়োজন। সকলকে অনুরোধ, বাড়িতে সাবধানে থাকুন। সরকারকে সাহায্য করুন।’
প্রসঙ্গত, ২০২০ সালে মুক্তি পেয়েছে শিখা মালহোত্রা অভিনীত ছবি ‘কাঞ্চলি লাইফ ইন অ্যা স্লথ’। সঞ্জয় মিশ্রার বিপরীতে হিন্দি ও পাঞ্জাবি ভাষার এই পিরিয়ড ড্রামায় অভিনয় করে বেশ পরিচিতি পেয়েছেন শিখা।
আরো পড়ুনঃ