করোনা পরিস্থিতি দীর্ঘস্থায়ী হলেও খাদ্য ঘাটতি হবে না -কুমিল্লায় এলজিআরডি মন্ত্রী

মোজাম্মেল হক আলম, লাকসাম।।

123
মানুষের সচেতনতার অভাবে এখনো সামাজিক দূরত্ব কোথাও কোথাও নিশ্চিত হচ্ছে না। তবে এ বিষয়টি স্থানীয় সরকারের প্রতিনিধিরা মনিটরিং করছেন। তবে সময়ের ব্যবধানে তা নিশ্চিত হবে বলে আশা করা যায়।করোনা পরিস্থিতি দীর্ঘস্থায়ী ও আরো ভয়াবহ হলেও সরকারের খাদ্য ও ত্রাণ তৎপরতার কোন ঘাটতি হবে না।পর্যাপ্ত প্রস্তুতি ও সক্ষমতা সরকারের রয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২৩এপ্রিল) স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি লাকসাম ও মনোহরগঞ্জে দুস্থ ও অসহায় মানুষের মধ্যে চলমান ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের তদারকি ও পর্যালোচনা শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এ কথা বলেন।
মন্ত্রী আরো বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে প্রতিটি মন্ত্রণালয় দায়িত্বশীল ভাবে করোনা মোকাবেলায় কাজ করে যাচ্ছে। দ্রুতই আমরা করোনা মোকাবেলায় সফল হব ইনশাল্লাহ। কৃষকের মাঠের ধান কাটতে সকলকে সহযোগীতা করা উচিত। মাঠ পর্যায়ে প্রশাসনের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্টদের কাজের উৎসাহ দিতেই আমি নিজ নির্বাচনি এলাকায় এসেছি। লাকসাম-মনোহরগঞ্জের প্রশাসন, আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ নিজ নিজ অবস্থান থেকে করোনা মোকাবেলায় কাজ করে যাচ্ছে।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীর, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, লাকসাম উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এড. ইউনুছ ভূঁইয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম সাইফুল আলম, পৌর মেয়র অধ্যাপক আবুল খায়ের, লাকসাম উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মহব্বত আলী, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) উজালা রানী চাকমা, জেলা পরিষদ সদস্য এড. তানজিনা আক্তার, উপজেলা মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পড়শী সাহা, পৌর আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক এড. রফিকুল ইসলাম হিরা, পৌর প্যানেল মেয়র-১ বাহার উদ্দিন বাহার, প্যানেল মেয়র-২ আবদুল আলিম দিদার, কাউন্সিলর খলিলুর রহমান, আফতাব উল্লাহ চৌধুরী ঝন্টু, উপজেলা যুবলীগ যুগ্ম-আহবায়ক মোঃ দলিলুর রহমান মানিক, উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম প্রমুখ ।
আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!