করোনা সংক্রমণ ও হাসপাতালে ভর্তিতে রেকর্ড:আলবার্টায়

অনলাইন ডেস্ক।।

52

কানাডার আলবার্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী বৃদ্ধি পেয়ে একের পর এক রেকর্ড করে চলেছে। সোমবার আলবার্টায় করোনা সংক্রমণ, হাসপাতাল ও নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে ভর্তিতে আরও একটি উচ্চ রেকর্ড করেছে।আলবার্টার চিফ মেডিকেল অফিসার ডা. ডিনা হিনশা সংবাদ সম্মেলনে বলেন, নতুন বিধিনিষেধের প্রভাব পড়ার আগে আরও কয়েকদিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ও হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা বাড়তে পারে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের প্রত্যেককে অবশ্যই আগের চেয়ে বেশি সচেতন থাকতে হবে। একে অপরকে এবং স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাকে সুরক্ষিত করার জন্য আমাদের এখন সক্রিয় করোনার সংখ্যা কমিয়ে আনতে হবে।আলবার্টায় সোমবারের করোনা সংক্রমণের হার আট শতাংশেরও বেশি ছিল। ২০ হাজার ৪৯৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় এক হাজার ৭৩৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

অন্যদিকে কানাডার গণপরিষেবামন্ত্রী অনিতা আনন্দ বলেছেন, সবার আগে টিকা পেতে তার দেশ টিকা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে।কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, আগামী বছরের সেপ্টেম্বরের মধ্যেই কানাডার অর্ধেকেরও বেশি মানুষের কাছে পৌঁছে যাবে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন।

ট্রুডো বলেন, দেশব্যাপী টিকাদান কার্যক্রম পরিচালনার জন্য তার সরকার সকল প্রদেশ এবং অঞ্চলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছে।উল্লেখ্য, টিকা পেতে কানাডা ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের মডার্না, ফাইজার, নোভাভ্যাক্স ও জনসন অ্যান্ড জনসনের সঙ্গে চুক্তি করেছে। তবে এগুলোর মধ্যে কোন কোম্পানির টিকা আগে পেতে কানাডা আলোচনা করছে, তা জানা যায়নি। টিকা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ফাইজার ও মডার্নার টিকাটি অনেকটা এগিয়ে রয়েছে।

সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, কানাডায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা তিন লাখ ৭৮ হাজার ১৩৯। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১২ হাজার ১৩০ জন এবং সুস্থ হয়েছেন দুই লাখ ৯৯ হাজার ৯৭২ জন।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!