কিন্ডারগার্টেনের জন্য আর্থিক সহায়তা বরাদ্দে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো- হাজী ইয়াসিন মিয়া

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।।

81

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নাসিক ২নং ওয়ার্ড ব্যক্তিমালিকানাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব ইয়াছিন মিয়া বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে তার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের জন্য আর্থিক সহায়তা ও স্কুলগুলোর জন্য প্রণোদনা বরাদ্দে নারায়ণগঞ্জের সিংহপুরুষ সংসদ সদস্য আলহাজ্ব একেএম শামীম ওসমানের মাধ্যমে আমি আমার সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।এসময় কিন্ডারগার্টেন ও সমমান স্কুল রক্ষা জাতীয় কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী ও বিশিষ্ট সাংবাদিক মোহাম্মদ আবদুল অদুদ করোনাকালে বিশেষ অবদানের জন্য তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

মঙ্গলবার রাতে হাজী ইয়াসিন মিয়ার মিজমিজির অফিসে নাসিক ২নং ওয়ার্ড ব্যক্তিমালিকানাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির এক সভায় জাতীয় পর্যায়ে কিন্ডারগার্টেন ও শিক্ষকদের দাবী আদায়ে প্রধান সমন্বয়কারী হিসেবে নেতৃত্ব দেয়ার জন্য মোহাম্মদ আবদুল অদুদকে তিনি ফুলেল শুভেচ্ছা জানান এবং তার দিক থেকে সবধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।করোনাকালে বিশেষ অবদানের জন্য নাসিক ২নং ওয়ার্ড ব্যক্তিমালিকানাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক (আবুল)কেও ক্রেস্ট দিয়ে সম্মান জানানো হয়।

আলহাজ্ব ইয়াসিন মিয়া বলেন, আমি কিন্ডারগার্টেন শিক্ষকদের পাশে আছি। কারণ, তাদের পাঠদান উন্নত এবং পিইসি পরীক্ষায় তাদের ফলাফলও তুলনামূলক ভালো। মমতাময়ী মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেখানে ১২ লক্ষ রোহিঙ্গাকে ভরণপোষণের দায়িত্ব নিয়েছেন, সেখানে প্রায় ৮ লক্ষ শিক্ষক-কর্মচারী ও তাদের পরিবারের সদস্যসহ প্রায় অর্ধকোটি মানুষের কথা তিনি নিশ্চয়ই ভাববেন বলে উপস্থিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের সামনে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এসময় সাংবাদিক আবদুল অদুদ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রাথমিক শিক্ষায় যে সাফল্য, তার প্রায় অর্ধেক অবদান কিন্ডারগার্টেনগুলোর। যেহেতু সংবিধানের ১৭ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশাপাশি তারা দেশে সার্বজনীন প্রাথমিক শিক্ষা প্রদান করছে, দেশকে নিরক্ষরমুক্ত করতে অবদান রাখছে এবং করোনার কারণে তারা ক্ষতিগ্রস্ত, তাই তাদের জন্য একটি সম্মানজনক আর্থিক সহায়তা বরাদ্দের দাবি যৌক্তিক।সভায় স্কুল খোলার পর করণীয় কি এসম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

নাসিক ২নং ওয়ার্ড ব্যক্তিমালিকানাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক (আবুল) এর নির্দেশনায় ও সহ সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান বাবলুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মিজমিজি হাজী আবদুস সামাদ সিনিয়র মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আবু তাহের, মিজমিজি পশ্চিমপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমান, আনন্দলোক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মজিবুর রহমান হাওলাদার, মাদার কেয়ার প্রি-ক্যাডেট এন্ড হাইস্কুলের পরিচালক জয়নাল আবেদীন, অক্সফোর্ড হাইস্কুলের পরিচালক জুলফিকার রফিকুল ইসলাম, এন আলম মেরিট কেয়ার স্কুলের পরিচালক মো. নুরুল আলম, হলিচাইল্ড জুনিয়র স্কুলের পরিচালক নাসের বিন হানিফ, ইসলামিক এডুকেয়ার একাডেমীর পরিচালক মাওলানা আবু ইউসুফ, নাহার এইচ স্কুলের পরিচালক হাফিজুল ইসলাম ভুইয়াসহ এলাকার বিভিন্ন কিন্ডারগার্টেন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা/পরিচালকবৃন্দ। এসময় বক্তারা ক্ষতিগ্রস্ত কিন্ডারগার্টেনগুলোকে বাঁচাতে মমতাময়ী মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!