কুমিল্লায় একটি গ্রাম লকডাউ; বহিরাগতদের প্রবেশ নিষিদ্ধ!

লালমাই প্রতিনিধি :

1,041
কুমিল্লার লালমাই উপজেলার একটি গ্রাম স্থানীয় যুবকদের উদ্যোগে করোনা ভাইরাস হতে রক্ষা পেতে লকডাউন করে রাখা হয়েছে,গতকাল পহেলা এপ্রিল বুধবার পেরুল উত্তর ইউনিয়নের ছোট হাড়িগিলা গ্রামে লকডাউন করা হয়। ওই গ্রামের সকলকে সুরক্ষিত রাখতে এই উদ্যোগ বলে জানিয়েছে স্থানিয়রা।
সরেজমিনে দেখা যায়, ছোট হাড়িগিলা গ্রামের প্রবেশমুখে বাঁশ দিয়ে ব্যারিকেড তৈরি করা হয়েছে। ব্যারিকেডের বাঁশের ওপর লেখা ‌লকডাউন সচেতন যুব সমাজের উদ্যোগে অনির্দিষ্টকালের জন্য বহিরাগতদের প্রবেশ নিষেধ।’ প্রশাসন, গণমাধ্যম ও মেডিক্যাল টিম এর আওতামুক্ত থাকবে। সচেতনতামূলক এ কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষ্যে পয়েন্টে পয়েন্টে বসেছে পাহারা। ছোট হাড়িগিলা যুব সমাজের অন্যতম সদস্য মাহবুবুর রহমানের সহ পালাক্রমে গ্রামের যুবকরা দায়িত্ব পালন করছে এ কাজে।
এলাকার বাইরের কেউ প্রবেশ করতে চাইলে তাদের বুঝিয়ে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। আর এলাকার যারা প্রয়োজনীয় কাজে বাজার কিংবা অন্যত্র থেকে ফিরছেন, তাদের প্রবেশ করানোর পর জীবাণুমুক্ত করে গ্রামে প্রবেশ করতে দেয়া হয়। প্রবেশমুখ গুলোতে ও ওই গ্রামে জীবাণুনাশক ছিটানো সহ গ্রামের প্রত্যেক ঘরে ঘরে সচেতনতা মূলক লিফলেট বিতরণ, মাক্স বিতরণ, সহ ৮ টি হাত ধোয়ার বেশিন স্হাপন করেন গ্রামের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে।অচিরেই তারা অসহায়দের খাদ্য সামগ্রী বিতরণের পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান কয়েকজন।
ওই গ্রামের বাসিন্দা আইউব আলী বলেন এই এলাকার বাসিন্দা অমি নিজেদের সুরক্ষায় কয়েকদিন যদি বের না হয়ে থাকতে হয়, তাহলে সেটি মেনে চলতে কোনও ক্ষতি নেই। আমাদের এলাকার যুব সমাজ যে উদ্যোগ নিয়েছে সেটি প্রতিবেশী ও স্থানীয়দের জন্য ইতিবাচক।
মাহাবুব বলেন, ‌’নিজেদের সুরক্ষার জন্য গ্রামবাসী ভালো উদ্যোগ নিয়েছে।’ গ্রামবাসীর কোনও সংকট সৃষ্টি হলে তা সমাধানের জন্য প্রশাসনের সহযোগিতা নেওয়ার অনুরোধ করেন তিনি।
আরো পড়ুনঃ