কুমিল্লায় করোনা উপসর্গ নিয়ে দুই যুবকের মৃত্যু

158

মাহফুজ নান্টু,কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ কুমিল্লা ব্রাহ্মনপাড়ায় করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে দু’যুবক মারা গেছে। গতকাল ভোরে ও সন্ধ্যায় ওই দুই যুবক চিকিৎসাধীন অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে মারা যায়। গতকাল রাতেই দাফন কাজ সম্পন্ন হয়।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ব্রাহ্মনপাড়া উপজেলার দঃ নাগাইশ গ্রামের মুরাদ বাড়ির পল্লী চিকিৎসক শাহ আলমের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (৩৫)। গত ৩ মাস আগে সিঙ্গাপুর থেকে দেশে আসে। কিছুদিন যাবত ঠান্ডাজনিত সমস্যায় ভুগছিল সে।

গত বুধবার তার কিছুটা শ্বাসকষ্ট হলে তার পরিবারের লোকজন তাকে কুমিল্লার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখানে তাকে না-রাখলে তার পরিবার তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে ২১মে ভোর সাড়ে ৬টায় দেলোয়ার হোসেন মারা যায়।

এদিকে উপজেলার ছাতিয়ানী গ্রামের মন্তু মিয়ার ছেলে রকিবুল ৭/৮ দিন আগে নারায়নগঞ্জ থেকে বাড়িতে আসে। কোয়ারান্টাইনে ছিল রাকিবুল। গত কয়েক দিন ধরে জ্বর ছিলো তার। ডাক্তারের পরামর্শে থাকে রকিবুল। তার স্যাম্পল নেয়ার কথা ছিল। গত পরশু হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।পরে রাকিবুল গতকাল সন্ধ্যায় ডায়রিয়ায় মারা যায়।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মনপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফৌজিয়া সিদ্দিকা জানান,উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার শঙ্খজিৎ সমাজপতি, অফিসার ইনচার্জ আজম উদ্দিন মাহমুদ ও সেন্যাটারী ইন্সপেক্টর পারভিন সুলতানা উপস্থিত হয়ে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক করোনা প্রটোকল মেনে মৃত দুই যুবকের দাফনকাজ সম্পন্ন করেন ।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফৌজিয়া সিদ্দিকা আরো জানান, মৃত দুই যুবকের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরিক্ষার ফলাফল এলেই এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যাবে আদৌ ওই দুই যুবক করোনায় আক্রান্ত ছিলো কি না।

আরো পড়ুনঃ