কুমিল্লায় ব্যবসায়ী নারায়ন হত্যায় একজনের ফাঁসি

মাহফুজ নান্টু, কুমিল্লা প্রতিনিধি।।

65

কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলার মোহনপুর বাজারের সুমা স্টুডিওর মালিক ব্যবসায়ী নারায়ন চন্দ্র পালের হত্যার ঘটনায় আসামী ফিরোজ মিয়াকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছে আদালত। কুমিল্লা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ তৃতীয় আদালতের বিচারক নাসরিন জাহান এ রায় দেন। নিহত নারায়ন চন্দ্র পাল দেবিদ্বার উপজেলার সুরেশ চন্দ্র পালের ছেলে। ঘাতক ফিরোজ মিয়া উপজেলার বাউরা গ্রামের মৃত শব্দর আলীর ছেলে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর মোঃ নুরুল ইসলাম। আসামী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন মোঃ ইলিয়াস মিন্টু ও জয়দেব চন্দ্র সাহা।আদালত সুত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ১১ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে প্বার্শবর্তী প্রীতি ডিজিটাল স্টুডিওর মালিক আসামী ফিরোজ মিয়া নারায়ন চন্দ্রপালের স্টুডিওতে প্রবেশ করে ঘুমন্ত অবস্থায় নারায়নের দুই হাত দুই পা বেঁধে ফেলে। পরে ইল্কেট্রিক শক ও স্টুডিওর ব্যবহৃত ছুরি দিয়ে নারায়নের শ্বাসনালীতে জখম করে খুন করে।

পরে ঘাতক ফিরোজ স্টুডিওর ব্যবহৃত ভিডিও ক্যামেরা , প্রিন্ট্রার্স কম্পিউটারসহ অন্যান্য মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পরদিন নারায়নের ভাই দুলাল চন্দ্র বাদী হয়ে দেবিদ্বার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে দেবিদ্বার থানার পুলিশ খুনের ৩০ ঘন্টার মধ্যেই আসামী ফিরোজ মিয়াকে লুন্ঠিত মালামালসহ গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের করে ফিরোজ মিয়া আদালতে খুনের ঘটনার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে।

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে ফিরোজ মিয়া জানায় নারায়নের স্টুডিওর মালামালের লোভে তাকে হত্যা করে।এদিকে আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১ টায় আদালতে শুনানীর সময় আসামীর ফিরোজের সামনে রায় শোনানো হয়। এদিকে আদালতে রায়ের সময় উপস্থিত ছিলেন না নারায়ন চন্দ্র পালের কোন স্বজন। তবে আদালতের রায়ে সন্তুষ প্রকাশ করেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর মোঃ নুরুল ইসলাম।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!