কুমিল্লা ডায়াবেটিক এসোসিয়েশনের উদ্যোগে জাতীয় ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবস পালিত

এমদাদুল হক সোহাগ।।

49
কুমিল্লা ডায়াবেটিক এসোসিয়েশনের উদ্যোগে আজ শুক্রবার জাতীয় ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবস পালিত হয়েছে। ডায়াবেটিক সমিতির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে প্রতি বছর দিবসটি পালিত হয়ে থাকে।
শুক্রবার সকালে কুমিল্লা ডায়াবেটিক হাসপাতাল প্রাঙ্গণে অবস্থিত ডায়াবেটিক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা মরহুম অধ্যাপক ডাক্তার মোহাম্মদ ইব্রাহিমের প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান কুমিল্লা ডায়াবেটিক এসোসিয়েশনের সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ও কমিল্লা টাউনহলের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হেলাল উদ্দিন আহমেদ, কুমিল্লা ডায়াবেটিক হাসপাতালের প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা জিএম সিকান্দার সহ অন্যান্যরা।

পরে বিনামূল্যে ডায়াবেটিস রোগ নির্ণয় কর্মসূচি ও পরামর্শ প্রদান করা হয়। বিনামূল্যে ডায়াবেটিস রোগ নির্ণয় কর্মসূচি ও পরামর্শ প্রদান অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন সমিতির সমাজকল্যাণ সম্পাদক মোঃ হেলাল উদ্দিন আহমেদ। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, একমাত্র সচেতনতাই ডায়াবেটিস রোগ নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ডায়াবেটিস নিয়ে কোন প্রকার দুশ্চিন্তা বা উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই। নিয়ম মেনে ও শৃংখল জীবনযাপন করলে ডায়াবেটিস তেমন ক্ষতি করতে পারে না।
আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ ভয়ে ডায়াবেটিস শরীরে আছে কিনা সেটিই পরীক্ষা করাতে চান না। ডায়াবেটিস আছে কিনা এই বিষয় নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভোগেন। তিনি বলেন ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীর সঠিক চিকিৎসা ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য কুমিল্লা ডায়াবেটিক হাসপাতাল নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ডায়াবেটিক হাসপাতাল একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান যার প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে মানুষের সেবা করা। তিনি আরো বলেন, সমিতির প্রধান উপদেষ্টা কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ডায়াবেটিক হাসপাতালের সমৃদ্ধি ও উন্নয়ন চলছে। রোগীদের কিভাবে সেবা প্রদান করা যায় সেদিকেই তিনি সবসময়ই তৎপর রয়েছেন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের পার্চেজ অফিসার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মমিন, জনসংযোগ কর্মকর্তা গণেন্দ্র চন্দ রতন, শাহবার খানম দোলি, হেলথ এডুকেটর নিরুপম কান্তি মন্ডল, নার্স ইনচার্জ আহমেদ জোরফান, নার্স ইনচার্জ আক্তার হোসেন, লাইব্রেরীয়ান আরিফ কাউসার প্রমূখ।
উল্লেখ্য, ১৯৫৬ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতি প্রতিষ্ঠা হয়। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সচেতন করে তুলতেই বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতি তার প্রতিষ্ঠা দিবসকে ডায়াবেটিক সচেতনতা দিবস হিসেবে পালনের উদ্যোগ নেয়। এবছর সমিতির ৬২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হচ্ছে।
ডায়াবেটিক সমিতির তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে বিশ্বজুড়ে ডায়াবেটিস আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৪২ দশমিক ৫ কোটি। অথচ ১৯৮৫ সালে এ সংখ্যা ছিল মাত্র ৩ কোটি। এখনই এই রোগ প্রতিরোধ করা না গেলে ২০৩৫ সালের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৯ কোটিতে পৌঁছানোর আশঙ্কা করা হচ্ছে।
আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!