কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে বহিরাগত দ্বারা যৌন হয়রানির অভিযোগ

32
সকাল ৮টায় ক্যাম্পাস আসে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস। ভুল করে মোবাইলে ফেলে আসায় মোবাইল খুঁজতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন মাঠে যায় এক ছাত্রী। আশেপাশে কেউ না থাকায় মেয়ের উপর শারিরীক আক্রমন করে কয়েকজন বহিরাগত। বৃহস্পতিবার এমন ঘটনা ঘটে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০ একরের ভিতরে। এ-ই নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যামে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে নিরাপত্তা নয় ছাত্রীরা এমন সমালোচনা করে।
যৌন হয়রানির বিচার চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ দেন হয়রানির শিকার অর্থনীতি বিভাগের ঐ ছাত্রী।
অভিযোগসূত্রে জানা যায়, শহর থেকে ক্যাম্পাসে আসার পর ভুল করে মোবাইল বাসে রেখে নেমে যান তিনি। পরে বাস থেকে মোবাইল নিয়ে নামার সময় একটি ছেলে হাত ধরে টান দেয় এবং বাসে উঠানোর জন্য জোর করতে থাকে। এসময় ছেলেটিকে ঐ ছাত্রী ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়ে বাসের পেছনে আশ্রয় নিয়ে তিনি তাঁর বন্ধুদের ফোন এবং মেসেজ দিতে থাকেন। বিষয়টি দেখে আবারও ছেলেটি ঐ ছাত্রীকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যান। এতে ঐ ছাত্রী মাথায় প্রচন্ড আঘাত পান।
ঐ ছাত্রী অভিযোগ করে বলেন, ‘ছেলেটির পোশাক-আশাকে টোকাই বলে মনে হয়েছে।’
অভিযোগের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, ‘আমি একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঐ ছাত্রী মানসিক ও শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় বেশি ইনফরমেশন নিতে পারিনি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে
আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!