কুয়াকাটার সব হোটেল-মোটেল বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন

অনলাইন ডেস্ক।।

91
পটুয়াখালীতে গেল ২৪ ঘণ্টায় ১৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এ নিয়ে বিদেশ থেকে আগত মোট ৩৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। এর মধ্যে পাঁচজনের মধ্যে কোন ভাইরাস না থাকায় তাদেরকে ছাড়পত্র দেয়ায় হলে তারা বাড়ি ফিরে গেছেন বলে সিভিল সার্জন অফিস নিশ্চিত করেছে। এদিকে হোম কোয়ারেন্টিনে না থেকে বাইরে প্রকাশ্যে ঘোরাঘুরি করায় ভারত থেকে আসা পটুয়াখালী শহরের স্বর্ণ ব্যবসায়ী সজল কর্মকারকে বুধবার ৫ হাজার টাকা এবং একই কারণে মালয়েশিয়া থেকে আসা মির্জাগঞ্জের পশ্চিম সুবিদখালীর মনির হোসেনকে ২ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।
অপরদিকে বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের কারণে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার সব হোটেল-মোটেল বন্ধ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন এবং আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে পর্যটকদের বাড়ি ফিরে যাবার জন্য মাইকিং করা হচ্ছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে।বুধবার সন্ধ্যার পর থেকে সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে ঘুরে মাইকিং করে পর্যটকদের ফিরে যেতে বলা হচ্ছে।করোনাভাইরাসের কারণে বাংলাদেশ সর্বোচ্চ সর্তক অবস্থানে থাকায় লক্ষ্যে এ উদ্যোগ নিয়েছে পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসন।
কুয়াকাটা টুরিস্ট পুলিশের সিনিয়র এএসপি মো. জহিরুল ইসলাম জানান, জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী সকল পর্যটকদের আজ বৃহস্পতিবারের মধ্যে বাড়ি ফিরে যেতে বলা হয়েছে। এছাড়া সব হোটেল-মোটেল পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ করে দেয়া হয়। এছাড়া সৈকতের সকল দোকানপাটও সরিয়ে নিয়ে যেতে বলা হয়েছে।
আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!