খাসির পরিবর্তে বিক্রি হচ্ছিল শিয়ালের মাংস, আটক ২

76
অন নিউজ রিপোর্টার।।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে শিয়ালের ৩০ কেজি মাংস জব্দ করেছে পুলিশ। খাসির মাংস বলে স্থানীয় রেস্টুরেন্টে এসব বিক্রি করা হচ্ছিল। খাসির কথা বলে শিয়ালের মাংস বিক্রিতে জড়িত দুজনকে আটক করা হয়েছে।
সরাইল বিশ্বরোড হাইওয়ে থানা পুলিশ দুজনকে আটক করার পর সরাইল বিশ্বরোড বাস স্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালায়। সেখান থেকে জব্দ করা হয় কলিজাসহ ৩০ কেজি শিয়ালের মাংস। আটককৃত আরজাত আলী (২২) ও সাদ্দাম হোসেনের (২০) বাড়ি হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার মরাকুরি গ্রামে।ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সরাইল বিশ্বরোড হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মইনুল ইসলাম বলেন, ঢাকার পূর্ব রামপুরার আল মেজবান নামের এক কসাইয়ের কাছ থেকে তারা শিয়ালের মাংস সংগ্রহ করতেন। এই মাংস ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এনে বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে বিক্রি করা হতো।
জব্দ করা মাংসের বাইরে তারা এরই মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কাউতুলি বাসস্ট্যান্ড এলাকার একটি রেস্টুরেন্টে ছয় কেজি মাংস বিক্রি করেছেন। পরে তারা আরেকটি রেস্টুরেন্টে মাংস বিক্রি করতে গিয়েছিল। সেখান থেকেই তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। জব্দ করা মোট মাংসের মধ্যে ১০ কেজি কলিজাও রয়েছে বলে জানান ওসি।সরাইল উপজেলার ভারপ্রাপ্ত ইউএনও ফারজানা প্রিয়াঙ্কা বলেন, আরজাত আলীকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ছয় মাসের কারাদণ্ড ও তার সহযোগী সাদ্দাম হোসেনকে ৫০০০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
আরো পড়ুনঃ