চাহীদা থাকায় প্রথমবারের মত স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে তেঁতুলের বিচি আমদানি

সালাহউদ্দিন বকুল, হিলি প্রতিনিধি।।

109

দেশের বাজারে চাহীদা থাকায় প্রথমবারের মতো দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে তেতুলের বিচি আমদানি হচ্ছে। মশা মারার কয়েল তৈরির কাঁচামাল ও শাড়িতে ব্যবহৃত রং এর কাচামাল হিসেবে এই তেতুলের বিচি ব্যবহৃত হয় বলে সংশ্লিষ্ট আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান জানিয়েছেন।শনিবার বিকেলে ভারত থেকে ৯০ মেট্রিকটন তেতুলের বিচিবাহী ৩টি ট্রাক হিলি স্থলবন্দরে প্রবেশ করে। চট্টগ্রামের উজ্জল শাহ নামের এক আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান এই তেঁতুলের বিচি আমদানি করেন।

হিলি স্থলবন্দর থেকে এর খালাস কার্যক্রম সম্পুর্ন করতে আমদানিকারকের পক্ষে নিয়োজিত রয়েছেন হিলি স্থলবন্দরের যমুনা ট্রেডিং কর্পোরেশন নামের সিআ্যন্ডএফ এজেন্ট। প্রতিটন তেতুলের বিচি ২শ মার্কিন ডলার মুল্যে আমদানি করা হচ্ছে, সেই মুল্যেই কাস্টমস কতৃপক্ষ শুল্কায়ন করছে, এতে করে টন প্রতি ১ হাজার ৬শ টাকা শুল্ক প্রদান করতে হচ্ছে। তৃতীয় দফায় বন্দর দিয়ে এই তেতুলের বিচি আমদানি করা হয়েছে এর আগে আরো দুই চালান তেতুলের বিচি আমদানি হয়েছে।

আমদানিকারক মনোনীত সিআ্যন্ডএফ এজেন্টে অনিক সরকার জানান, গতকাল হিলি স্থলবন্দর দিয়ে চট্টগ্রামের উজ্জল শাহ নামের আমদানিকারকের ৩ট্রাকে ৯০টন তেতুলের বিচি আমদানি করা হয়েছে। আমদানিকারকের মনোনীত সিআ্যন্ড এফ এজেন্ট হিসেবে আমি বন্দর থেকে তেতুলের বিচি খালাসের কাজ সম্পুর্ন করছি। গতকাল বন্দরে এসব তেতুলের বিচি প্রবেশ করেছে আজ বিকেলে অথবা আগামীকাল সকালে আরোপিত শুল্ক পরিশোধ পুর্বক আমদানিকারকের নিকট এসব তেতুলের বিচি সরবরাহ করা হবে।

দেশে মশা মারার কাজে ব্যবহৃত কয়েল তৈরির কাঁচামাল হিসেবে ও শাড়িতে ব্যবহৃত রং এর কাঁচামাল হিসেবে তেঁতুল বিচি ব্যবহার হয়ে থাকে। দেশে বর্তমানে মশার উপদ্রæপ বেড়ে যাওয়ায় ব্যাপক হারে মশা মারার কয়েল বিক্রি হচ্ছে। এতে করে দেশের বাজারে কয়েল তৈরির কাঁচামাল তেতুলের বিচির বেশ ভালো চাহীদা ও দাম ভালো থাকায় ভারত থেকে তেতুলের বিচি আমদানি করা হচ্ছে। আমদানিকৃত এসব তেঁতুলের বিচি ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হচ্ছে।

হিলি স্থলবন্দরের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন জানান, হিলি স্থলবন্দর দিয়ে চাল,গম, ভুট্টা, পাথর পেঁয়াজসহ বিভিন্ন পণ্য আমদানি হলেও এই প্রথম বন্দর দিয়ে তেতুলের বিচি আমদানি হচ্ছে। গতকাল শনিবার ভারত থেকে ৩টি ট্রাকে ৯০মেট্রিকটন তেঁতুলের বিচি আমদানি করা হয়েছে। তেতুলের বিচিগুলো বন্দরের ১নং ওয়্যার হাউজে রাখা হয়েছে, কাস্টমসের প্রক্রিয়া শেষে শুল্ক পরিশোধ পুর্বক এসব তেতুলের বিচি ছাড়করন দেওয়া হবে।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!