ছয়দিন পর হিলিতে নায্যমুল্যে টিসিবির পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম শুরু

হিলি প্রতিনিধি।।

৫০

সকল পণ্য না পৌছানোর কারনে ছয়দিন বন্ধের পর দিনাজপুরের হিলিতে ফ্যামেলি কার্ডের মাধ্যমে নায্য মূল্যে টিসিবি’র পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম শুরু হয়েছে। খোলা বাজারে যখন এসব পণ্যের মুল্য বৃদ্ধি পাচ্ছে এমন সময়ে ঈদের আগে কম দামে তেল,ডাল,চিনি পেয়ে দারুন খুশি ফ্যামেলি কার্ডধারী নিন্ম আয়ের মানুষজন।

সোমবার সকাল ১১টায় হিলি স্থলবন্দরের চারমাথা মোড়ে টিসিবির এই পণ্য বিক্রয় কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন হাকিমপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন উর রশিদ হারুন ও হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুর এ আলম। আগামী ৫ জুলাই পর্যন্ত টিসিবির এই পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম চলবে। যদিও গত ২২জুন বুধবার থেকে সারাদেশে এই বিক্রয় কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এসময় সেখানে উপজেলা পরিষদের ভাইসচেয়ারম্যান শাহিনুর রেজা, টিসিবির ডিলার মেসার্স আলম ট্রেডার্সের সত্বাধিকারী আলম হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

টিসিবির পণ্য নিতে আসা কার্ডধারী নজরুল ইসলাম বলেন, আমরা গরীব মানুষ আমাদের আয় উপার্জন কম। কিন্তু বাজারে তেল চিনি ডালের প্রচুর দাম বেশী এত দাম দিয়ে এসব কিনে খাওয়া যেমন আমাদের পক্ষে সম্ভব না তেমনি বাড়তি মুল্যের কারনে আমাদের সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। তাই এখানে টিসিবির থেকে কম দামে তেল চিনি ও ডাল বিক্রি শুরু হয়েছে সে কারনে নিতে এসেছি। ঈদের আগে বাজারের চেয়ে কমমুল্যে এসব পণ্য পাওয়ায় আমাদের মত মানুষদের খুব সুবিধা হয়েছে। নিয়মিত যেন এসব পণ্য আমাদের দেয় তাহলে আরো সুবিধা হবে।

টিসিবির পণ্য নিতে আসা অপর ক্রেতা গোলাপি বেগম বলেন, বাজারে যে জিনিসপত্রের দাম বেশী তার কথা আর বলা যাবেনা। এর উপর সামনে কুরবানির ঈদ এসময় তেলের একটা বাড়তি চাহীধা থাকে। বাজারে ১লিটার তেলের দাম ২০৫টাকা সেখানে টিসিবি থেকে ২লিটার তেল ১ কেজি চিনি ও ২ কেজি করে মশুরডাল দিচ্ছে ৪০৫টাকা প্যাকেজের মাধ্যমে। ২লিটার তেলের দাম দিয়ে আমরা এর সাথে চিনি ও মশুরডাল বাড়তি হিসেবে পাচ্ছি এতে করে আমাদের মত নিন্ম আয়ের মানুষজনের খুব সুবিধা হয়েছে।

হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূর-এ আলম বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ নির্দেশনায় সারাদেশ ব্যাপী ঈদুল আযহার পুর্বেই ১ কোটি পরিবারকে সরকারি ভর্তুকি মুল্যে টিসিবির তেল চিনি ও মশুর ডাল প্রদান করা হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় হিলিতে ১০ হাজার ৫শ ৭১ জন উপকারভোগী পরিবারকে ফ্যামেলি কার্ডের মাধ্যমে ১ কেজি করে চিনি, ২ কেজি করে মশুর ডাল ও ২ লিটার করে বোতলজাত সয়াবিন তেল দেওয়া হচ্ছে। বন্যার কারনে টিসিরি মালামাল সঠিক সময়ে না পৌছানোয় এই কার্যক্রম শুরু করতে কিছুটা বিলম্ব হল।

টিসিবির নির্ধারীত ডিলারকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে প্রত্যেকটি পরিবারকে যথাযথভাবে শনাক্তপুর্বক কার্ডে লিপিবদ্ধ করে পণ্যগুলি যেন যথাযথভাবে বিতরন করা হয়। আমরা এই পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম তদারক করছি। আমরা আশা করছি যেসকল উপকারভোগীদের মাঝে এসব পণ্য পৌছানোর কথা তারা যথাযথভাবে ভর্তুকি মুল্যে পণ্যগুলি সংগ্রহ করতে পারবে। তারপরেও কোথাও কোন ধরনের সমস্যার সৃষ্টি হয় আমরা তাৎক্ষনিকভাবে সেটি সমাধানের চেষ্টা করবো।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!