ঝালকাঠিতে ইসলামী যুব আন্দোলনের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

ঝালকাঠি প্রতিনিধি।।

49

ঝালকাঠির রাজাপুরে ইসলামী যুব আন্দোলনের উদ্যোগে মাদক, সন্ত্রাস ও উগ্রবাদ বিরোধী শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৮ অক্টোবর) উপজেলা শহরের নুর নগর তুলাতলা সৈয়দ ফজলুল করীম কমপ্লেক্স মাঠে যুব আন্দোলনের সভাপতি মাওলানা মিজানুর রহমান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন, ডাঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজী, শুরা সদস্য, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটি।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, মুফতি আসাদুজ্জামান, সভাপতি ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ রাজাপুর, রাজাপুর উপজেলা ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর সভাপতি মাওলানা হেদায়েতুল্লাহ ফয়েজী ও মাওলানা আল আমিন দোহারী, সহ সভাপতি জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ রাজাপুর।

মাহফুজুর রহমান এর সঞ্চালনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, মাওলানা রফিকুল ইসলাম, সেক্রেটারি জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ রাজাপুর, মাওলানা মহিউদ্দিন, সহ সভাপতি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রাজাপুর, মাওলানা বাইজিদ হোসাইন, সহ সভাপতি ইসলামী যুব আন্দোলন রাজাপুর উপজেলা আব্দুল কাদের তাওহীদী, সভাপতি ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন রাজাপুর উপজেলা প্রমুখ।

ইসলামী যুব আন্দোলন আয়োজিত মাদক সন্ত্রাস ও উগ্রবাদ বিরোধী আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ধর্মীয় আচার মেনে চললে দেশে মাদক ও সন্ত্রাস হ্রাস পাবে। মাদক ও সন্ত্রাস রোধে ইসলামী আইনের বিকল্প নেই। সারাদেশে মাদক সন্ত্রাস অন্যায়-অনিয়ম দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে। যুবসমাজ মাদকাসক্ত এবং মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ছে। এহেন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের আগামীর ভবিষ্যৎ অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে যাবে।

তারা আরও বলেন, সরকার মাদক এবং সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বললেও কার্যকরি কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। মাদক বিরোধী আইনের নামে মাদককে আস্কারা দিলে দেশ ধ্বংসের অতল গহবরে তলিয়ে যাবে। এছাড়াও ফ্রান্স সরকারের সহযোগিতায় বাকস্বাধীনতার নামে বহুল সমালোচিত ম্যাগাজিন শার্লি এবদো কর্তৃক বিশ্ব মানবতার শান্তির দূত মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর কার্টুন প্রচার করে মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ঘটিয়েছে। এমন জঘন্যতম অন্যায় কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। বিশ্বনবীর অবমাননার ঘটনা অসভ্যতাকেও হার মানিয়েছে। ফ্রান্স সরকারকে এর চরম মূল্য দিতে হবে।

মাদকের আগ্রাসনে আজ আমাদের দেশের যুব সমাজ প্রায় ধ্বংসের পথে। এই মাদকের আগ্রাসন থেকে পরিত্রান পেতে হলে আদর্শ যুবকদেরকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাদকের বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে। এই মাদক সেবনের মাধ্যমে আমাদের দেশে সন্ত্রাস ও উগ্রবাদী সৃষ্টি হচ্ছে। আর যারা ইসলামের দোহাই দিয়ে উগ্রবাদ ছড়াতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে সজাগ থাকতে হবে।

এদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষায় ইসলামী যুব আন্দোলন কে ভূমিকা রাখতে হবে। পাড়ায়-মহল্লায় মাদক বিরোধী সচেতনতা গড়ে তুলতে হবে। একটি যুবকও যেন মাদকের সাথে জড়িয়ে না পড়ে, সেদিকে ইসলামী যুব আন্দোলনের খেয়াল রাখতে হবে। আলোচনা সভা শেষে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!