ঝালকাঠিতে ডিজিটাল সেন্টারের ১১ বছর পূর্তি উপলক্ষে মতবিনিময় সভা

ঝালকাঠি প্রতিনিধি।।

১২৫

ডিজিটাল সেন্টারের ১১ বছর পূর্তি ও ডিজিটাল বাংলাদেশ ই-সেবা ক্যাম্পেইন উপলক্ষে ঝালকাঠিতে মতবিনিময় ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ-উপলক্ষে মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেবাকেন্দ্রের উদ্যোক্তা ও সুশিল সমাজের প্রতিনিধিদের নিয়ে এই অনুষ্ঠানে ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মোঃ জোহর আলী প্রধান অতিথি ছিলেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও ডিডি এলইজি মোঃ কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা ও মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন। উদ্যোক্তা সহ ৯০জন এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করেন। জেলায় ইউনিয়ন সেবা কেদ্রের উদ্যোক্তাদের মধ্যে শ্রেষ্ঠ সেবা প্রদানকারি ভৈরবপাশা ইউপি উদ্যোক্তা রোজিনা আক্তার ও গালুয়া ইউপি উদ্যোক্তা মোঃ আব্দুল কাইউমকে পুরুষ্কৃত করা হয়।

এই ২ জনকে ১০ হাজার টাকা করে পুরুষ্কার হিসেবে দেয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও এসপায়ার টু-ইনোভেট, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এতে সহযোগিতা করেছে। আলোচনা সভায় জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শাহপার পারভীন, ঝালকাঠি সরকারি কলেজের আইসিটি বিভাগের শিক্ষক মোঃ আসাদুজ্জামান, ঝালকাঠি পৌরসভা প্যানেল মেয়র তরুন কর্মকার, কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান হাবিল, প্রেস ক্লাব সভাপতি চিত্ত রঞ্জন দত্ত, সাংবাদিক হেমায়েতউদ্দিন হিমু ও উদ্যোক্তাদের মধ্যে রোজিনা আক্তার এবং মোঃ শাহাবুদ্দিন মিয়া বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা ১১ বছর পূর্বে শেখ হাসিনা প্রত্যান্ত অঞ্চল ভোলার চরফেসনের চর কুকরী-মুকরী দ্বীপ থেকে ডিজিটাল উদ্যোক্তা কেন্দ্র স্থাপনের মধ্য দিয়ে যে বাংলাদেশের সূচনা করেছিলেন সেই বাংলাদেশ ১১ বছরে আজ অনেক দুর এগিয়ে এসেছে এবং এই আইসিটির হাত ধরেই বাংলাদেশ উন্নয়ন ও অগ্রগতির পথ সূচিত হয়েছে। সেই সময় ডিজিটাল বাংলাদেশকে নিয়ে যারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ব্যঙ্গাক্ত উক্তি বা মন্তব্য করেছিলেন বর্তমান ডিজিটাল বাংলাদেশ তাদের কেই লজ্জা দিয়েছে।

আয়েশা আক্তার/অননিউজ24

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!