ঝিনাইদহে অনুষ্ঠিত হল গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিখেলা

55

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি।। ঝিনাইদহে অনুষ্ঠিত হল গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিখেলা। শৈলকুপা উপজেলার ত্রিবেনী ইউনিয়নের শ্রীরামপুর উত্তরপাড়া কালী নদীর চরে শনিবার বিকেলে এ খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলার আয়োজন করে বসন্তপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নাজমুল ফিরোজ সাগর ও সার্বিক সহযোগিতা করে শ্রীরামপুর উত্তরপাড়া যুব সংঘ।

গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী এ খেলা উপভোগ করতে আশাপাশ এলাকা থেকে ছুটে আসে হাজারো উৎসুক জনতা। আর এই লাঠি খেলাকে কেন্দ্র করে পুরো এলাকা পরিণত হয় উৎসবের আমেজে।

চারদিকে ঢাকঢোল আর কাসার ঘণ্টার বাজনা। বাদ্যের তালে তালে লাঠিয়ালদের কসরত। দর্শকদের আনাগোনায় মুখর হয়ে পড়ে পুরো এলাকা। উৎসবে রূপ নেয় শ্রীরামপুর গ্রাম। বৃদ্ধ,নারী-পুরুষ, শিশু উপস্থিত থেকে নিবিড় দৃষ্টিতে উপভোগ করে এই খেলা।
নানা রংয়ের পোশাকে সেজে দুপুরের পর থেকেই খেলা শুরু করে লাঠিয়াল সর্দার। বাদ্যের তালে তালে লাঠিয়ালরা আক্রমণ করেন একে অন্যকে। প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাত থেকে নিজেকে রক্ষা আর কৌশলে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে মেতে ওঠেন তারা। চমৎকার এ আয়োজন ঘোরের রাজ্যে নিয়ে যায় সমর্থকদের।

আধুনিক প্রযুক্তির দৌরাত্মের মাঝেও এমন আয়োজনে উচ্ছ¡সিত দর্শকরা। লাঠি খেলা দেখে খুবই আনন্দিত দর্শক। তাই প্রতিনিয়ত এ ধরনের আয়োজন করার দাবি তাদের।

আয়োজক নাজমুল ফিরোজ সাগর বলেন, গ্রামীণ ঐতিহ্যকে তুলে ধরার পাশাপাশি হারিয়ে যাওয়া খেলাধুলাকে ফিরিয়ে আনতেই এমন আয়োজন করা হয়েছে। লাঠিখেলা আমাদের গ্রামীণ ঐতিহ্য,আর এই ঐতিহ্য ধরে রাখতেই এ খেলার আয়োজন করা হয়।

আহম্মদ আলী জোয়ার্দ্দারের সভাপতিত্বে খেলায় প্রধান অতিথি ছিলেন ত্রিবেনী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সেকেন্দার আলী মোল্লা।
বিশেষ অতিথি ছিলেন, ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার আসাদুজ্জামান মাখন।

লাঠিখেলায় ১০টি লাঠিয়াল দল অংশ নেয়। খেলা শেষে বিজয়ী, রানার্সআপ ও অংশগ্রহণকারী দলের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!