টিকটক নিষিদ্ধ ভারতে, ট্রলের শিকার অস্ট্রেলিয়ান ওয়ার্নার

55

অনলাইন ডেস্ক ।। নিরাপত্তা ঝুঁকি ও তথ্য পাচারের শঙ্কায় সোমবার ৫৯টি চীনা অ্যাপ বন্ধ করে দিয়েছে ভারত সরকার। যার মধ্যে সবার ওপরেই রয়েছে ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটক। অচিরেই এসব অ্যাপসের ওপর দেয়া নিষেধাজ্ঞা সরে যাওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই।

মজার বিষয় হলো, টিকটক ভারতে নিষিদ্ধ হলেও, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ট্রলের শিকার হচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ার বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার। এর পেছনে যুক্তিযুক্ত কারণ অবশ্য নেই। কেননা অস্ট্রেলিয়ায় বসে এখনও খুব সহজেই টিকটক ভিডিও করতে পারবেন ওয়ার্নার।

তবু তাকে ট্রল করার অন্যতম কারণ হলো, ওয়ার্নারের বেশিরভাগ ভিডিও মূলত ভারতের বলিউড ও টলিউড গানের ওপরেই বানানো। এই যেমন সম্প্রতি বলিউডের সাড়া জাগানো গান ‘গেন্দা ফুল’ এর সঙ্গে টিকটক বানিয়েছিলেন ওয়ার্নার।

যার ফলে টিকটকে তার অনুসারীদের বড় একটা অংশই ছিল ভারতের। এখন যেহেতু ভারতে টিকটক বন্ধ, তাই ওয়ার্নারের ভিডিও আর আগের মতো সাড়া পাবে না- এমনটাই বলাবলি করছেন ভারতের নেটিজেনরা। যেখানে বাদ যাননি ভারতীয় ক্রিকেট দলের অফস্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনও।

তবে ওয়ার্নার মূলত টিকটকে এসেছে তার দুই মেয়ের অনুরোধ রাখতে। ছোট দুই মেয়ের কথা অনুযায়ী টিকটক প্রোফাইল খুলে সেখানে স্ত্রী-কন্যাদের নিয়েও টিকটক ভিডিও বানিয়েছেন ওয়ার্নার। যেগুলো নেট দুনিয়ায় পেয়েছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা।

করোনাকালীন সময়ে মানুষকে খানিক বিনোদন দেয়ার জন্য টিকটক খুলেছেন জানিয়ে ওয়ার্নার বলেছিলেন, ‘আমাদের এখন ভিন্ন কিছুই ভাবতে হবে। আমার কাছে বিষয়টা ছিল মানুষের মুখে হাসি ফোঁটানো। টিকটক, টুইটার, ইন্সটাগ্রামের মাধ্যমে আমি ও আমার পরিবার তা করতে পেরেছি।’

অবশ্য এতেও টিকটক বন্ধ হওয়ার পর ট্রলের হাত থেকে রেহাই মেলেনি ওয়ার্নারের। ভারতের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখন ওয়ার্নারকে নিয়ে নানান ট্রল ছবি দেখা যাচ্ছে মানুষের প্রোফাইলে। যেখানে টিকটক বন্ধ হওয়া নিয়েই খোঁচা দেয়া হয়েছে ওয়ার্নারকে।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!