তেঁতুলিয়ার পিকনিক কর্ণারে এবার গুণতে হবে প্রবেশ ফি

72

ডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড় প্রতিনিধি। বাংলাদেশের সর্ব উত্তরের প্রান্তিক সীমান্ত জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলা সদরের কোল ঘেষা মহানন্দা নদী সংলঘ্ন পিকনিক কর্ণারে দীর্ঘদিন থেকে পর্যটকরা বিনা মূল্যে প্রবশ এবং ভ্রমণ করলেও এবার থেকে গুণতে হবে প্রবেশ ফি। “টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়ায়” এই প্রবাদের বহু পরিচিত তেঁতুলিয়ায় সারা বছর দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে হাজার হাজার পর্যটকের আগমন ঘটে। দীর্ঘদিন পর্যটকরা বিনামূল্যে উপজেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত তেঁতুলিয়া পিকনিক কর্ণার বা বিনোদন কেন্দ্রটি ব্যবহার করলেও এবার প্রবেশ ফি’র উপর উপজেলা নির্বাহী অফিস কার্যালয় শর্তসাপেক্ষে ইজারা বিজ্ঞোপ্তি প্রকাশ করেছে।

বছরব্যাপী পিক ও অফপিক সিজনে দুই ধাপে প্রবেশ ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। আগত পর্যটকদের প্রবেশ ফি এবং যানবাহন পার্কিং ফি আদায়ের জন্য শর্তসাপেক্ষে এই বিজ্ঞোপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। এবং সিডিউল বিক্রয়ের শেষ তারিখ আগামী মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) এবং দাখিলের শেষ সময় একই দারিখ দুপুর ১টা নির্ধারণ করা হয়েছে।

গত বুধবার (১৯ আগস্ট) উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে এই ইজারা বিজ্ঞোপ্তি প্রকাশ করেছে সহকারী কমিশনা (ভূমি) মাসুদুল হক ও আহব্বায় তেঁতুলিয়া পিকনিক কর্ণার উন্নয়ন কমিটি।

সহকারী কমিশনা (ভূমি) মাসুদুল হক বলেন, তেঁতুলিয়া একটি সকলের পরিচিত জাইগা। তাই পঞ্চগড়সহ সারা দেশের ভ্রমণ পিয়াসুরা প্রতিদিন ছুটে আসেন তেঁতুলিয়ার পিকনিক কর্ণারে। এখানকার মনোরম পরিবেশ ও প্রাকৃতিক দৃশ্য সকলের মন কাড়ে। তাই এই পিকনিক কর্ণারে এখন থেকে ইজারাদারের মাধ্যমে সর্ত সাপেক্ষে পর্যটকদের ফি আদায় করা জন্য বিজ্ঞোপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সোহাগ চন্দ্র সাহা বলেন, যেহেতু সারাদেশের বিনোদন কেন্দ্রগুলো খুলে দেয় হয়েছে তাই আমরাও আমাদের এই পিকনিক কর্ণারটি খুলে দিয়ে ইজারা বিজ্ঞোপ্তি প্রকাশ করেছি। যেহেতু পিকনিক কর্ণারের উন্নয়নে বর্তমান সরকার ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে তাই এই পিকনিক কর্ণারের উন্নয়ন ও সঠিক ব্যবহার এবং রক্ষণাবেক্ষণের জন্য এখন থেকে আগত পর্যটকদের নির্ধারীত ফি গুণতে হবে।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!