তেলের দাম বাড়ায় হিলিতে বিপাকে পড়েছেন পরিবহন চালকরা

হিলি প্রতিনিধি

৪৯

সবধরনের জ্বালানি তেলের দাম প্রকারভেদে লিটার প্রতি ৩৪ থেকে ৪৬টাকা বাড়িয়ে দিয়েছে সরকার। এতে করে দিনাজপুরের হিলিতে বিপাকে পড়েছেন বিভিন্ন পরিবহন মালিক ও এর চালক সহকারীরা। তেলের দাম বাড়ানোয় অনেক চালক ট্রাক ও বাস চালানো বন্ধ করে দিয়ে দ্রুত তাদের ভাড়ানোর দাবী জানিয়েছেন। এদিকে বাস না চলায় বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা তেমনি পণ্য পরিবহন নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন বন্দরের ব্যবসায়ীরা।

শনিবার সরেজমিন হিলি বাসস্টান্ড ঘুরে দেখা গেছে, এখান থেকে বিভিন্ন গন্তব্যের উদ্দেশ্যে নিয়মিতভাবে বাস ছেড়ে যেতে দেখা যায়নি। পুর্বে হিলি থেকে বিভিন্ন রুটে ২২টি বাস চলাচল করলেও তা কমে ৪/৫টি বাস চলাচল করছে সেটিও বেশ কয়েকঘন্টা পর। এদিকে এখনো এসব বাসে পুর্বের ভাড়া নেওয়া হচ্ছে জানিয়ে ভাড়া বাড়ানোর আভাস দিয়েছেন চালকরা। এদিকে বিভিন্ন পার্কিংয়ে বেশ কিছু ট্রাককে দাড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। তেলের দাম বাড়ার ফলে বর্তমান ভাড়ায় না পোষানোর কারনে ট্রাক না চালানোর কথা জানিয়েছেন। তবে দুএকটি ট্রাককে বন্দরের ভেতরে পণ্য নিতে প্রবেশ করতে দেখা গেছে।

বাসযাত্রী জেসমিন সুলতানা বলেন, আগামীকাল আমার অনার্স পরিক্ষা আমাকে দিনাজপুরে যেতে হবে। শুনতেছি তেলের দাম বাড়ার কারনে বাস বন্ধ হয়ে যাচ্ছে যার কারনে আজকেই দিনাজপুর যাবার জন্য বাস স্টান্ডে এসেছি। কিন্তু একঘন্টার উপরে বসে আছি কোন বাস নেই এতে করে চরম বিপাকে পড়েছি। সকালে নাকি একটি বাস গেছে তারপরে আর বাস যায়নি প্রায় দেড়ঘন্টা অপেক্ষার আর একটি বাস ছাড়লো সেটিতে করে পুর্বের ভাড়াতেই দিনাজপুর যাচ্ছি। এখন তেলের দাম বাড়ায় বাসের ভাড়াও বাড়বে এতে করে আমাদের মতো মানুষদের চলাচলে দারুন সমস্যা হবে।

ট্রাক চালক ইসমাইল হোসেন বলেন, আগে যে তেলের দাম ৮০ টাকা লিটার ছিল তাতে করে তখনই আমাদের টিপ মেরে খরচ বাদ দিয়ে তেমন কিছু টিকতোনা। চালক হেলপার দের বেতন দিয়ে ট্রাকের কিস্তি চালানো অসম্ভব হয়ে পড়ে। এখন যে লিটার প্রতি ৩৪টাকা বাড়ালো তাতে করে মালিকদের ট্রাক চালানো যেমন অসম্ভব ব্যাপার ট্রাক বিক্রি করা ছাড়া আর উপায় নেই তাদের। তেমনি আমরা যারা চালক ও সহকারী রয়েছি তারাও বেকার হয়ে যাব। তাই অতি দ্রæত যেন ট্রাক ভাড়া বাড়ানো হয় তবে মালিকরা যেমন বাচবে তেমনি আমরাও দুবেলা ডাল ভাত খেয়ে বাচবো।

ট্রাক চালক দুখু মিয়া বলেন,সরকার যে ডিজেল তেলের দাম একলাফে ৩৪টাকা করে বাড়িয়ে ১১৪টাকা নির্ধারন করে দিয়েছে তাতে করে আমাদের বর্তমান ভাড়ায় ট্রাক চালানো সম্ভব নয়। সরকার যদি এখন আমাদের ভাড়া বাড়িয়ে দেয় তবেই ট্রাক চালানো সম্ভব হবে। আর তা না হলে ট্রাক চালানো বন্ধ রাখতে হবে লোকশান করে তো কেউ আর চালাবেনা।

হিলি দিনাজপুর রুটের বাস চালক সাইফুল ইসলাম বলেন, যেভাবে তেলের দাম বাড়ালো সরকার তাতে করে আমাদের বাস চালানো সম্ভব নয়। আগে দিনাজপুর যেতে সাড়ে ৩হাজার টাকার তেল লাগতো এখন সেখানে ৫ থেকে ৬ হাজার টাকার তেল লাগবে। এতে করে আমাদের যে পরিমান যাত্রী হয় আর যে ভাড়া তাতে করে বাড়তি দাম দিয়ে তেল করে আমাদের পোষাবেনা। যার কারনে না পোষানোয় আমরা মহাজনদের নির্দেশে বাস চালানো বন্ধ রেখেছি।

হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকরক এনামুল হক বলেন,গতকাল রাত থেকে হঠাৎ করে তেলের দাম বাড়ায় হিলি স্থলবন্দর থেকে পুর্বে যেসব ট্রাক কম ভাড়াতে পেয়াজসহ বিভিন্ন পণ্য পরিবহন করতো এখন সেখানে ভাড়া বাড়বে। বিভিন্ন গন্তব্য স্থানে পৌছাতে বাড়তি ভাড়ার কারনে পণ্যের উপর এর প্রভাব পড়বে যার কারনে দাম বাড়বে। সাধারন মানুষকে পুর্বের চেয়ে বাড়তি দামে কিনে খেতে হবে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!