দলীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করে ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র জমা বিএনপি

সালাহউদ্দিন বকুল, হিলি প্রতিনিধি।।

৭৭

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয়ভাবে নির্বাচনে না যাওয়ার সিন্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়তা দল (বিএনপি)। তবে বিএনপির সেই নির্দেশনা উপেক্ষা করে দিনাজপুরের হিলিতে আসন্ন ৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বিএনপির স্থানীয় পর্যায়ের নেতা কর্মীরা। এমনকি ওই নির্বাচনে ১টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন জামায়াতের এক নেতা। এছাড়া সদস্য পদেও অনেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিসারের কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার খট্টামাধবপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আব্দুল মালেক, সে ওই ইউনিয়নের বিএনপির একজন সদস্য, বোয়ালদাড় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোননয়নপত্র জমা দিয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান মেফতাহুল জান্নাত, সে বিএনপির সদস্য,এছাড়া আলিহাট ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মাসুদ রানা, সে থানা ছাত্রদলের যুগ্মআহবায়ক। ওই ইউনিয়নেই স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে জামায়াতের আমিনুল ইসলাম মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন, তিনি এর আগে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন।

বোয়ালদাড় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমাদানকারী মেফতাহুল জান্নাত বলেন, দল থেকে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দাড়ানো যাবেনা এমন কোন নির্দেশনা আমি পাইনি। তবে আমি বর্তমান রানিং চেয়ারম্যান এবং এবারের নির্বাচনেও চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি। আমি দলীয়ভাবে কোন নির্বাচনে অংশগ্রহন করছিনা বা তাদের কোন সমর্থন নেই।

খট্টামাধবপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমাদানকারী আব্দুল মালেক বলেন, দলীয় সিন্ধান্ত কি এটা আমি বলতে পারবোনা তবে আমি নির্বাচন করতেছি এটা আমি জানি। আমি এই নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোননয়নপত্র জমা দিয়েছি ও আমি নির্বাচন করবো, আমি তো দলীয় ভাবে নির্বাচন করতেছিনা।

আলিহাট ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোননয়নপত্র জমা দানকারী মাসুদ রানা বলেন, দলীয়ভাবে নির্বাচনে যাওয়ার কোন সিন্ধান্ত নেই যেটি কেন্দ্র থেকে জানানো হয়েছে। তবে আমি স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে এই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহন করছি। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করা যাবেনা বা দাড়ানো যাবেনা বা এবিষয়ে এমন কোন নির্দেশনা দলীয়ভাবে এখনো পাইনি।

হাকিমপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি ফেরদৌস রহমান বলেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি দলীয়ভাবে অংশগ্রহন করবেনা। তাই এই নির্বাচনে আমাদের দলীয় কোন প্রতিক নেই দলীয় কোন নির্বাচন নেই। কেউ যদি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে দাড়াই সেটি তাদের ব্যাক্তিগত ভাবে নির্বাচন।

হাকিমপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার শফিকুর রহমান আকন্দ বলেন, উপজেলার ৩টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ, জাতীয়পার্টি, ইসলামি আন্দোলন, স্বতন্ত্র প্রার্থী মিলিয়ে ১৪জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

সাধারন ওয়ার্ডের সদস্য পদে ১১৭জন ও সরক্ষিত ওয়ার্ডের সদস্য পদে ৩৬জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। আগামী ২১ অক্টোবর মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই অনুষ্ঠিত হবে, প্রার্থীতা ত্যাহারের তারিখ ২৬ অক্টোবর, প্রার্থীদের মাঝে প্রতিক বরাদ্দ হবে ২৭ অক্টোবর। আগামী ১১নভেম্বর ২৭টি কেন্দ্রে ব্যালটের মাধ্যমে ওই ৩টি ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হবে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!