নারায়ণগঞ্জে লঞ্চ ডুবিতে ১৫ জনের লাশ উদ্ধার

80

১৮ ঘন্টা পর নারায়ণগঞ্জের লঞ্চঘাট থেকে মুন্সিগঞ্জের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া এম ভি রাবিত আল হাসান নামের যাত্রীবাহী লঞ্চটি উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস ও বিআইডিব্লউটিএ। বেলা সাড়ে বারটার সময় নৌযাটি উদ্ধার করা হয়। এসময় লঞ্চের ভেতর থেকে আরও ১০ টি মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।

এদিকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিখোঁজের তালিকা করছে সেখানে ২৬ জনের নাম লেখা হয়েছে। শীতলক্ষ্যা নদীতে সৈয়দপুর কয়লা ঘাট এলাকায় উদ্ধার অভিযান করছে ফায়ার সার্ভিস, বিআইডব্লিউটিএ উদ্ধারকারী ডুবুরী দল।

নারায়ণঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক জানান, লঞ্চের ভেতর থেকে আরও ১০জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল ৫ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়ে ছিলো। এ পর্যন্ত মোট ১৫ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ৪ টি লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

রোববার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে নারায়ণগঞ্জ থেকে ছেড়ে লঞ্চটি সোয়া ৬ টার দিকে শীতলক্ষ্যা নদীতে সৈয়দপুর কয়লা ঘাট এলাকায় পৌঁছলে এস কে থ্রি নামে লাইটার জাহাজের ধাক্কায় লঞ্চটি ডুবে যায়। নৌযানটিতে অন্তত ৫০ জন যাত্রী ছিলো বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাদের মধ্যে ২০ জন সাতঁরে তীরে উঠেছে ও কয়েকজন আহত বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে বলেও জানিয়ে জেলা প্রশাসন।

উল্লেখ্য, লঞ্চ ডুবির ঘটনায় জেলা প্রশাসনের ৭ বিশিষ্ট ও বিআইডব্লিউটিএ ৪ সদস্যেও পৃথক দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!