নীলফামারী ডিমলায় ১১ বছরের শিশু দলবদ্ধ ধর্ষণের স্বীকার আটক ১ যুবক

নীলফামারী প্রতিনিধি।।

৬৪

নীলফামারীর ডিমলায় ১১ বছর বয়সী এক শিশু দলবদ্ধ ধর্ষণের স্বীকার হয়েছে। সুজন ইসলাম নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে ডিমলা উপজেলার খালিশা চাপানি ইউনিয়নের এ ঘটনা ঘটে। শিশুটি স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানিয়েছে , দুপুরের দিকে শিশুটির বাবা ও মা তাকে বাড়িতে রেখে নিকট এক আত্মীয়ের জানাজায় অংশ নিতে যান,শিশুটি বাড়িতে একাই ছিল। এ সুযোগে একই ইউনিয়নের প্রতিবেশী মোশাররফ হোসেনের ছেলে সুজন ইসলাম ও আমিনুর রহমানের ছেলে বুলু বাদশা ওই বাড়িতে ঢুকে শিশুটিকে ধর্ষণ করে। নির্যাতিত শিশুর মা জানান, আত্মীয়ের দাফন শেষে সন্ধ্যায় বাড়িতে ঢুকে তিনি মেয়েকে মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন। তার কাছ থেকে ঘটনা জেনে গ্রামের লোকজনকে জানান।

শিশুটির চাচা জানান, রাতে মেয়ের অবস্থার অবনতি হলে ডিমলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। পরে চিকিৎসকেরা শিশুটিকে নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালে রেফার করেন। সে এখন সেখানে চিকিৎসাধীন।

ডিমলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. শফিকুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রাতেই শিশুটিকে নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

ডিমলা থানার অফিস ইনচার্জ (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘এ ব্যাপারে শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে।’

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!