ফেনীতে আনারস প্রতিকে চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মী ও স্বজনদের উপর হামলার অভিযোগ

সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি।।

৯৫

সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবীতে ফেনী সদর উপজেলার ধলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতিকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী লুৎফুন নাহার পারভীন সংবাদ সম্মেলন করেছেন। মঙ্গলবার বিকালে তার নিজ বাড়িতে ভোটার ও এজেন্টদের নিরাপত্তা এবং ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ চেয়ে তিনি এ সংবাদ সম্মেলন করেন।

আগামী ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় ৫ম ধাপের ফেনী সদর উপজেলার ধলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতিকে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী লুৎফুন নাহার পারভিন সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন প্রতিদ্বন্দ্বী ক্ষমতাসীন দলের চেয়ারম্যান প্রার্থী আনোয়ার আহমদ মুন্সি ও তার ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা তার সমর্থক ও ভোটারদের উপর হামলা নির্যাতন অব্যাহত রেখেছে। হামলা নির্যাতনের ধারাবাহিক অংশ হিসেবে সোমবার (৩জানুয়ারি) বিকালে ধলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে থেকে তার প্রচার মাইকে থাকা চার যুবককে পিটিয়ে মাইক ও মাইকের মেশিন লুটে নিয়েছে সন্ত্রাসীরা।

তার দুই দেবর আইভী ও প্রবির বাড়ি থেকে ফেনী যাওয়ার পথে ধলিয়া বাজারে রাত আটটার দিকে মোটর সাইকেলের গতি রোধ করে বেধড়ক পিটিয়ে তাদের ব্যবহৃত দুটি মোটর সাইকেল লুটে নিয়েছে। এর আগে তার নিরিহ ভোটারদের উপর হামলা হয়েছিল। বসত বাড়ির পাশে গভীর রাতে বোমা ফাটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছিলা সন্ত্রাসীরা।

এছাড়া আরো একটি প্রচার মাইকে ভাঙচুর চালিয়ে লুটে নিয়েছে। অসংখ্য পোস্টার ব্যানার ছিঁড়ে ফেলেছে। নির্বাচন কমিশন তথা নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সবার কাছে লিখিত ও মৌখিক আবেদন করেও কোন প্রতিকার পাননি বলে দাবি করেছেন। প্রতিদ্বন্দ্বী আনোয়ার আহমদ মুন্সিকে প্রধান আসামী করে থানায় অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাননি বলে তিনি অভিযোগ করেছেন। তাই তিনি সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে গভীর শঙ্কার মধ্যে আছেন।

তিনি আরো অভিযোগ করেন, মঙ্গলবার সকাল দশটা থেকে বহিরাগত সন্ত্রাসীরা তার বাড়ির আশপাশ সহ পুরো ধলিয়া ইউনিয়নে অবস্থান নিয়েছে। এজেন্টদের কাগজপত্র পাঠাতে পারছেননা। রাত পোহালেই ভোট ফেনীর জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার সুষ্ঠু নির্বাচনের আশ্বাস দিলেও বাস্তবে এর কোন প্রতিফলন তিনি দেখেননি। ধলিয়া ইউনিয়নে সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যত্যয় ঘটলে দায়ভার নির্বাচন কমিশন সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে নিতে হবে।

তিনি বলেন তফসিল ঘোষণার পর থেকে ধলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে জনগণের পাশে থাকার জানান দিয়েছিলেন। জনগণকে দেয়া কথা তিনি রেখেছেন। নানা অত্যাচার সহ্য করেও তিনি নির্বাচনী মাঠে লড়ে যাচ্ছেন। তিনি জনগণের ভোটে বিশ্বাসী। তিনি দাবী করেন ভোটের ক্ষণ গণনা শুরু হলেও সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ এখনো তৈরী করতে পারেননি।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!