ফোন তুলতে গিয়ে শৌচাগারে ডুবে মরলেন মা-ছেলে

81

অনলাইন ডেস্ক।। রাজশাহীর দুর্গাপুরে পড়ে যাওয়া মোবাইল ফোন তুলতে গিয়ে কাঁচা শৌচাগারে ডুবে মা ও ছেলের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার কয়ামাজমপুর উত্তরপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন, ওই গ্রামের চা বিক্রেতা আবদুল কুদ্দুসের স্ত্রী শাহিনা বেগম (৩০) ও তার ছেলে রাসেল রানা (১৬)। রাসেল রানা এবারের এসএসসি পরীক্ষার ফলপ্রার্থী।

বাড়ি লাগোয়া দোকান করে চা বিক্রি করেন আবদুল কুদ্দুস। পড়াশোনার পাশাপাশি বাবাকে সহায়তা করত রাসেল।

প্রতিবেশীরা জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলেও বাবার সঙ্গে দায়ের দোকানে ছিল রাসেল। সন্ধ্যা ৭টার দিকে প্রকৃতির ডাকে শৌচাগারে যায়। ওই সময় অসাবধানতাবশত সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোনটি শৌচাগারের গর্তে পড়ে যায়। ফিরে গিয়ে দোকান থেকে দুটি পলিথিন নিয়ে আসে। এরপর দুই হাতে পরে শৌচাগারের ঢাকনা তুলে মোবাইল ফোন তোলার চেষ্টা করছিল সে। নিচু হতে হতে এক পর্যায়ে গর্তের ভেতর তার মাথা ডুবে যায়।

বিষয়টি টের পেয়ে মা শাহিনা বেগম গিয়ে ছেলের পা ধরে টেনে তোলার চেষ্টা করেন। কিন্তু তিনিও গর্তে পড়ে যান। খবর পেয়ে স্থানীয়রা মা ও ছেলের নিথর দেহ গর্ত থেকে তুলে আনেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন দুর্গাপুর থানার ওসি খুরশীদা বানু কনা। তিনি বলেন, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে গেছেন। এনিয়ে আইনত ব্যবস্থা নেবে পুলিশ।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!