বিএনপি-জামায়াত এদেশের স্বাস্থ্যসেবা ধ্বংস করেছে…. স্বাস্থ্য মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

৭২

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি বলেছেন, ‘বিএনপি-জামায়াত এদেশের স্বাস্থ্যসেবা ধ্বংস করেছে, মানুষকে পুড়িয়ে মেরেছে আর জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার স্বাস্থ্য খাতে অভাবনীয় উন্নতি সহ মানুষের চিকিৎসার সুব্যবস্থা নিশ্চিত করেছেন।’ বুধবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে দুই দিনের কুমিল্লা সফরের প্রথম দিনে চান্দিনা উপজেলার পানিপাড়া পশ্চিম পাড়া ঈদগাহ মাঠে ‘নূরননেসা-মামিনুল কমিউনিটি ক্লিনিক’ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় আমলে একটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালও প্রতিষ্ঠা করতে পারেনি, একজন ডাক্তারও নিয়োগ দিতে পারেনি বরং মানুষের চিকিৎসার প্রথম ধাপ কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো বন্ধ করে দিয়েছে। তারা ধ্বংসের রাজনীতিতে বিশ্বাসী আর জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার উন্নয়নের রাজনীতিতে বিশ্বাসী।

তিনি বলেন, এদেশের স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিরাই ‘৭৫ এর ১৫ আগস্ট জাতির জনককে স্বপরিবারে হত্যা করেছে। বঙ্গবন্ধুকে শারীরিক ভাবে হত্যা করলেও তাঁর স্বপ্নকে হত্যা করতে পারিনি। জননেত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। যারা আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিল, আজ তারাই দিনে দিনে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাচ্ছে।

দেশের জ্বালানি তেল ও দ্রব্যমূল্য সম্পর্কে স্বাস্থ্য মন্ত্রী আরও বলেন, আন্তর্জাতিক ভাবে সকল দ্রব্যমূল্য তিনগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে, আমাদের যাতে শ্রীলঙ্কার মতো পরিস্থিতিতে পড়তে না হয় সেজন্য আগাম ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে। এখন ধীরে ধীরে তা কমিয়ে আনাও হচ্ছে। এসময় দেশের উন্নয়নে আগামী নির্বাচনের জন্য স্বাধীনতার প্রতীক নৌকায় ভোট প্রার্থনা করেন তিনি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত এমপি’র সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহা ব্যবস্থাপক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডাক্তার ফাতেমা রহমান, চান্দিনা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তপন বক্সী, স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মীর মোবারক হোসাইন, মাইজখার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহ্ সেলিম প্রধান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত সচিব সাইদুর রহমান, নাজমুল হক খান, সাইফুল্লাহ হিল আজম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের চিফ ইঞ্জিনিয়ার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল বশির আহমেদ, মহাপরিচালক (মেডিকেল এডুকেশন) অধ্যাপক ডা. একেএম আমিরুল মোরশেদ, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবীর, পরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মো. সামিউল ইসলাম, চান্দিনা উপজেলার নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) তাপস শীল, পৌর মেয়র শওকত হোসেন ভূইয়া, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) উম্মে হাবিবা মজুমদার, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (দাউদকান্দি সার্কেল) ফয়েজ ইকবাল, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. আরিফুর রহমান, থানা অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. সাহাবুদ্দীন খান, বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, প্রশাসনের বিভিন্ন পদস্থ কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদের সকল চেয়ারম্যান, সূধীজন প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহা ব্যবস্থাপক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম এর নিজ বাড়ি কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার মাইজখার ইউনিয়নের পানিপাড়া গ্রামে তাঁর মা নূরননেসা ও বাবা মামিনুল এর নামে সরকারি অর্থায়নে ‘নূরননেসা-মামিনুল কমিউনিটি ক্লিনিক’ প্রতিষ্ঠা করেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রী ও তাঁর সফরসঙ্গীগণ দুপুরে কুমিল্লার কোটবাড়িতে অবস্থিত বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (বার্ড)-এর উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনি কুমিল্লা ত্যাগ করবেন।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!