বিএসএমএমইউতে করোনার অ্যান্টিবডি টেস্টের মেশিন উদ্বোধন

অনলাইন ডেস্ক।।

১১৩

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের হেমাটোলজি বিভাগে করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি টেস্টের মেশিন ও কর্নারের উদ্বোধন করা হয়েছে।

রোববার (২৯ আগস্ট) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব চিকিৎসা যন্ত্রপাতির উদ্বোধন করেন। এছাড়া ক্যানসার চিকিৎসার সফলতার মাত্রা নির্ণায়ক ফ্লো সাইটোমেট্রি মেশিনেরও উদ্বোধন করা হয়। পরে এ উপলক্ষে হেমাটোলজি বিভাগের শ্রেণিকক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল দেশের রোগীদের যেন বিদেশে যেতে না হয়, রোগীরা যেন দেশেই চিকিৎসাসেবা পান তা নিশ্চিত করা। বঙ্গবন্ধু ও তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রত্যাশা অনুযায়ী এই বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসাসেবা কার্যক্রম আরও উন্নত করাসহ সার্বিক বিষয়ের উন্নয়ন করা হবে।

অ্যান্টিবডি টেস্টের বিষয়ে উপাচার্য বলেন, করোনাভাইরাসের বিভিন্ন ধরনের ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা নির্ণয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে গবেষণা কার্যক্রম চলমান থাকবে। দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পরে বুস্টার ডোজ নিতে হবে কি-না সে বিষয়ে গবেষণা শুরু হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ক্যান্সার চিকিৎসার সফলতার মাত্রা নির্ণায়ক ফ্লো সাইটোমেট্রি মেশিন আজ উদ্বোধন করা হয়েছে। ব্লাড ক্যান্সারসহ বিভিন্ন রোগের সর্বাধুনিক চিকিৎসার জন্য হেমাটোলজি বিভাগে স্টেম সেল ট্রান্সপ্ল্যান্টেশন চালুর প্রাথমিক কার্যক্রম এরই মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে এবং খুব শিগগিরই পূর্ণাঙ্গভাবে স্টেম সেল ট্রান্সপ্ল্যান্টেশন চালু করা হবে।

সভাপতির বক্তব্যে হেমাটোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. সালাহউদ্দিন শাহ বিভাগে হেমাটোপয়েটিক স্টেম সেল ট্রান্সপ্লান্টেশন শুরু, ক্যান্সার রোগীদের চিকিৎসার জন্য বেড বৃদ্ধি ও বিশ্বমানের ওয়ার্ড তৈরি, হেমাটোলজি ল্যাবের আন্তর্জাতিক অ্যাক্রেডিটেশন অর্জন এবং শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রমকে গতিশীল করার ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের চলমান সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন, বিএসএমএমইউয়ের হেমাটোলজি বিভাগকে বিশ্বমানের হেমাটোলজি চিকিৎসাকেন্দ্রে পরিণত করতে ও এই বিশ্ববিদ্যালয়কে সেন্টার অফ এক্সিলেন্সে পরিণত করতে বিভাগের এই নতুন সংযোজনগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, কোভিড মহামারি মোকাবিলায় দেশে চলমান টিকাদান কর্মসূচিতে প্রয়োগ করা টিকার ফলে মানবদেহে সৃষ্ট অ্যান্টিবডি নির্ণয় টিকার কার্যকারিতা নির্দেশ করে। হেমাটোলজি বিভাগে স্থাপিত এবোট আর্কিটেক্ট আই১০০০ এসআর কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে তৈরি অ্যান্টিবডি পরিমাপের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের এফডিএ’র জরুরি ব্যবহারের অনুমোদনপ্রাপ্ত মেশিন। এর মাধ্যমে করোনার অ্যান্টিবডি পরিমাপের মাধ্যমে টিকা সংক্রান্ত গবেষণা করা সম্ভব হচ্ছে। পাশাপাশি হেপাটাইটিস সংক্রান্ত অ্যান্টিবডি ও বিভিন্ন বায়োকেমিক্যাল পরীক্ষা করা সম্ভব হবে।

অনুষ্ঠানে ফ্লো সাইটোমেট্রি মেশিন সম্পর্কে বলা হয়, রক্তের ক্যান্সারসহ রক্তের অন্যান্য রোগ নির্ণয়ের ক্ষেত্রে ফ্লো সাইটোমেট্রি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন। রক্তের ক্যান্সার চিকিৎসার ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধাপে চিকিৎসার সফলতার মাত্রা ফ্লো সাইটোমেট্রি পরীক্ষার মাধ্যমে নির্ণয় করা যায় এবং চিকিৎসার পরবর্তী ধাপ নির্ধারণ করা যায়। হেমাটোপয়েটিক স্টেম সেল ট্রান্সপ্লান্টেশনের ক্ষেত্রে স্টেম সেল প্রয়োগের আগে স্টেম সেল গণনার জন্য ফ্লো সাইটোমেট্রি ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

এছাড়াও হেমাটোলজি বিভাগে কর্মরত সহকারী অধ্যাপকদের শিক্ষা, গবেষণা ও চিকিৎসা কার্যক্রম সহজীকরণে সুসজ্জিত কক্ষের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর মাধ্যমে মডেল ওয়ার্ড তৈরি, হেমাটোলজি ল্যাবের আন্তর্জাতিক অ্যাক্রেডিটেশন ও মৌলিক গবেষণাসহ অন্যান্য কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারবেন শিক্ষকরা।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বিএসএমএমইউ উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. এ কে এম মোশাররফ হোসেন, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মাসুদা বেগম, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবুর রহমান দুলাল, পরিচালক (হাসপাতাল) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. মো. নজরুল ইসলাম খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সাইফ/অননিউজ টুয়েন্টিফোর

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!