বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কৃষকের চোখের সামনেই মারা গেলো দুটি গাভী

65

এম এ কবীর, ঝিনাইদহ।। ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কৃষকের চোখের সামনে কাঁপতে কাঁপতে মারা গেছে তার দুটি গাভী। এ সময় অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন আরেকটা গাভীসহ ওই কৃষক।

এ ঘটনায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন কৃষক হারুন অর রশিদ । অতি যতেœ পালিত দুটি গাভী হারিয়ে বুক চাপড়ানো কান্না কিছুতেই থামছে না।
বুধবার বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার সুন্দরপুর – দূর্গাপুর ইউপির ভাটপাড়া গ্রামের মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

গাভী দুটির আনুমানিক মূল্য ২ লাখ টাকা। মাঠের মধ্য স্থাপিত বিদ্যুতের পোলের সাপোর্টের জন্য টানা তার বৃষ্টির পানিতে ডুবে গিয়ে তা বিদ্যুতায়িত হয়ে পড়ে। গরু দুটি এ টানা স্পর্শ করা মাত্রই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যায়। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষককে সান্তনা দিতে এমপি আনোয়ারুল আজিম আনার, পিডিবি’র কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

গাভী দুটির মালিক হারুন অর রশিদ জানান, তিনি মাঠে থেকে গরু চরিয়ে বিকেল ৫টার দিকে বাড়ি ফিরছিলেন। মাঠ থেকে ভাটপাড়া নলডাঙ্গা মাঠের একটি বিদ্যুতের পোলের কাছে উঠলে আগে যাওয়া দুটি গাভী তারের স্পর্শে হঠাৎ ছটফট করে মাটিতে পড়ে যায়। তিনি কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই অন্য গরুটি নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে আসলে গরুর সঙ্গে তিনিও কাঁপতে থাকেন। এরপর গরুটি নিয়ে তাড়াতাড়ি পেছনের দিকে সরে গিয়ে গরুটির সঙ্গে তিনিও রক্ষা পান। তবে আগে যাওয়া গাভী দুটি তার চোখের সামনেই ছটফট করতে করতে মারা যায় ।

ইউপি চেয়ারম্যান ইলিয়াস রহমান মিঠু জানান, হারুন অর রশিদ খুবই দরিদ্র । একজন কৃষকের গোয়ালের গরু মারা গেলে সান্তনা দেয়ার ভাষা থাকে না। তারা বিদ্যুৎ বিভাগের কাছে উপযুক্ত ক্ষতিপূবণ দাবী করেছেন।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!