ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল পশ্চিমবঙ্গ

অনলাইন ডেক্স।।

109
বড়দিনের আগের রাতে মৃদু ভূকম্পনে কেঁপে উঠলো ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের জলপাইগুড়ি জেলা। ভূকম্পন অনুভূত হতেই আতঙ্ক ছড়ায় সেখানকার সাধারণ মানুষের মধ্যে। অনেকেই ঘর ছেড়ে বেরিয়ে আসেন রাস্তায়। মঙ্গলবারের এ ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ভূপৃষ্ঠ থেকে ৩২ কিমি গভীরে। তবে এতে কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।
মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকেই বড়দিন বরণে চূড়ান্ত ব্যস্ততা ছিল জলপাইগুড়ি শহরে। শহরের গির্জা গুলোতে ছিল চরম ব্যস্ততা। শহরের বাজারগুলোও ছিল বড়দিনের কেক ও উপহার কেনার ভিড়। শহরের একাধিক বাজারে এদিন ছিল উপচে পড়া ভিড় তার মধ্যে ভূকম্পন অনুভূত হলে আতঙ্কিত মানুষজন ছোটাছুটি শুরু করে।
এনডিটিভির প্রতিবেদন অনুযায়ী মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটার পর ৩ দশমিক ২ মাত্রার এ ভূকম্পন অনুভূত হয়। এর আগে গত জুলাইয়ে ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল শিলিগুড়িসহ উত্তরাঞ্চলের বেশ কিছু এলাকা। সে সময়ও আতঙ্কে রাস্তায় এসেছিল বহু মানুষ। এবার জলপাইগুড়িতেও হয়েছে তেমনটিই।
অল্প কিছুক্ষণের এই ভূকম্পনেও আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে জলপাইগুড়িতে। শহরের নয়বস্তী ব্যাপটিস্ট চার্চ, আসাম মোড় চার্চ প্রভৃতি চত্বরে ছত্রভঙ্গ হয় বড়দিন বরণের অনুষ্ঠানের আয়োজকরা। অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। অনেকে আবার ফোনে খোঁজ নেন পরিবার-পরিজনেদের।
ভূকম্পন অনুভূত হতেই মুহূর্তে বাড়ি-ঘর-দোকান ছেড়ে ফাঁকা জায়গায় বেরিয়ে পড়েন শহরবাসীর একাংশ। অনেকে ফাঁকা মাঠে জমায়েত হন। বুধবার সকাল পর্যন্ত জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভূমিকম্পের জেরে ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি।
অন্যদিকে, কম্পন অনুভূত হয়েছে নেপাল সীমান্তবর্তী ও হিমাচল প্রদেশ লাগোয়া ভারতে আরেক রাজ্য উত্তরাখন্ডেও। গতকাল মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে সেখানেও ভূকম্পন অনুভূত হয়েছে। রিখটার স্কেলে এই ভূমিকম্পটি ছিল ৪ দশমিক ৫ মাত্রার। সেখানকার মানুষও ভূমিকম্পের পর তীব্র আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।
আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!