মানব সেবার মহান ব্রত পালনে বিয়ের পোশাক ছেড়ে গায়ে জড়িয়েছেন পিপিই

অনলাইন ডেস্ক।।

33
যার পরনে থাকার কথা ছিল বিয়ের পোশাক। কিন্তু তিনি গায়ে জড়িয়েছেন পিপিই (ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম)। হাসপাতালে করে যাচ্ছেন রোগীর সেবা। তার নাম সাফির মোহাম্মেদ।
দুবাইয়ের এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে রোববার (২৯ মার্চ) তার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। ভারতের কেরালার কুন্নুরে কর্মরত এই চিকিত্‍সক তার বিয়ে পিছিয়ে দিয়েছেন। কারণ, তিনি এখন করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সেবা করতে চান।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, দেশের এই পরিস্থিতির মধ্যে বিয়ে করার মতো বিলাসিতা করতে চান না সাফির। তাই পেশাগত কর্তব্য পালনে ব্রতি হলেন তিনি। যেদিন তার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল সেই দিনটা কেটেছে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রোগীর সেবায়।
বিয়ে পিছিয়ে দেয়া প্রসঙ্গে স্থানীয় গণমাধ্যমকে সাফি বলেন, ‘দেখুন বিয়ে অপেক্ষা করতে পারে, অসুস্থ হয়ে যারা হাসপাতালে ভর্তি, তারা অপেক্ষা করতে পারবেন না। তাই আমি আমার কর্তব্য পালন করছি মাত্র। এর বাইরে কিছুই নয়। এ নিয়ে এতো আলোচনার কোনো প্রয়োজন নেই। সবার মানসিক সমর্থন ছাড়া এই সিদ্ধান্ত নিতে পারতাম না। মা বাবা আমার কথায় রাজি হন। হবু স্বামীও রাজি হন। আমি তাদের কাছেও কৃতজ্ঞ।’
তবে সাফির বন্ধুরা এ নিয়ে বেশ ইয়ার্কি করেছেন। আর বাড়ির অন্য সদস্যরাও হাসি ঠাট্টা করেন।
আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!