মিরনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি রক্ষার দাবী এলাকাবাসীর

70

আবুল হোসেন সবুজ, মাধবপুর হবিগঞ্জ।। হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ৪১ নং মিরনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি পুকুর ভাঙ্গনের হুমকির মুখে দাঁড়িয়ে আছে। আসছে বর্ষা মৌসুমের যেকোনো সময় বিদ্যালয় ভবনটি ধ্বসে পড়তে পারে পুকুরে।

এতে করে শিক্ষক শিক্ষার্থী-অভিভাবক সহ যে কোন ধরনের প্রাণহানির আশঙ্কা বিদ্যমান। বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মিজানুর রহমানসহ অভিভাবক মহল জোর দাবি জানিয়েছেন পুকুরের প্রয়োজনীয় গাইড ওয়াল নির্মাণের মাধ্যমে ধ্বসে পড়ার হাত থেকে বিদ্যালয় ভবনটি রক্ষার মাধ্যমে প্রাণহানির আশঙ্কা দূরীকরণের জন্য। ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মিজানুর রহমান জানান ১৯৯৩ ইং সনে ৪৬ শতক জমির উপর বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই বিদ্যালয়টি অবহেলিত অবস্থায় রয়েছে ।

বর্তমানে বিদ্যালয়টিতে পাঁচটি শ্রেণিতে চার শতাধিকশিক্ষার্থী অধ্যায়নরত । প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় পাশের হার শতভাগ। চার শতাধিক শিক্ষার্থীর বিপরীতে ৫ জন শিক্ষক কর্মরত আছেন। তারা কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মান উন্নয়নে অবদান রেখে যাচ্ছেন। সরকারের যথাযথ কর্তৃপক্ষ উপরের গাইডওয়াল নির্মাণ এর মাধ্যমে বিদ্যালয় ভবনটি রক্ষা করতে পারেন। বিদ্যালয় ভবনটি ধসে পড়লে প্রাণহানির আশঙ্কা সহ শিক্ষার মান নিম্নমুখী হয় পড়বে বলে তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

মিরনগর গ্রামটিএকটি জনবহুল গ্রামে এর ২ /৩ কিলোমিটার এর কাছা কাছি কোন বিদ্যালয় না থাকায় গ্রামের একমাত্র এই প্রাইমারী স্কপুলটিই ভরসা। প্রতিষ্টাকাল থেকে এই স্কুলটি অবহেলিত ও নানা সমস্যায় জর্জরিত। এই বিদ্যায়টির ৪৬ শতক ভূমির মধ্যে প্রতিষ্ঠিত হলেও বর্ষা মৌসুমে পার্শবর্তী পুকুরে পর্যায় ক্রমে ভাঙ্গনের ফলে বর্তমানে মাত্র ৫/৬ শতক ভুমিতে একটি আধাপাকা ভবন ও একটি দুই কক্ষের অফিস ভবন ধ্বসে পড়ার হুমকির মধ্যে দাড়িয়ে আছে। যে কোনসময় এই ভবনটি পুকুরে ধ্বসে গিয়ে ছাত্র,শিক্ষকের সলিল সমাধি হওয়ার হুমকিতে আছেন বিদ্যালয়টির ছাত্র,শিক্ষক ও অবিভাবক গন।

উল্লেখ্য যে এই পুকুরে পানিতে একাধিক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। তাই জরুরি ভিত্তিতে পুকুরে গাইডওয়াল নির্মাণ এর মাধ্যমে বিদ্যালয়টি রক্ষা করার আবশ্যকতা জানান এলাকাবাসী।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!