মেসি-নেইমারদের বিপদে ফেললেন চিলির ফুটবলাররা!

অনলাইন ডেস্ক।।

10

করোনাভাইরাসের কারণে কয়েক দফা বদলেছে কোপা আমেরিকা চলতি আসরের ভেন্যু। শেষ পর্যন্ত এটি হচ্ছে ব্রাজিলে। যেখানে করোনা সংক্রমণের হার এখনও উর্ধ্বমুখী। তবু সর্বোচ্চ সতর্কতা নিশ্চিত করে কোপার ম্যাচগুলো আয়োজনের কথা জানিয়েছিল আয়োজক সংস্থা কনমেবল।

কিন্তু এসবকে যেন থোরাই কেয়ার করলেন চিলির ফুটবলাররা। করোনা ঝুঁকির মধ্যেই হোটেল রুমে নারী ডেকে পার্টির অভিযোগ উঠেছে চিলির ছয় ফুটবলারের বিরুদ্ধে। তাদের এমন কাণ্ডে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়ে গেলেন লিওনেল মেসি, নেইমার জুনিয়রসহ কোপা আমেরিকায় অংশ নেয়া সব ফুটবলাররা।

কোপায় অংশ নিতে ব্রাজিলের কুইয়াবার গ্রান হোটেল ওদারায় থাকছে চিলি দল। সেখানেই বেশ কয়েকজনকে নারীকে ডেকে পার্টি করেছেন আর্তুরো ভিদালরা- এমনটাই জানাচ্ছে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মার্কা। অথচ জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থাকায় বাইরে থেকে কাউকে আনা কঠোরভাবে নিষিদ্ধ।

আর্তুরো ভিদাল ছাড়া এ কাণ্ডে নাম এসেছে মেক্সিকোর ক্লাব লিওনের ফরোয়ার্ড জ্যাঁ মেনেসেস, অ্যাটলেটিকো মিনেইরোর স্ট্রাইকার এডুয়ার্ডো ভারগাস, বোলোনিয়ার ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার গ্যারি মেডেল, ভেলেজ সার্সভেল্ডের মিডফিল্ডার পাবলো গালদামেস ও বায়ার লেভারকুসেনের অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার চার্লস আরাঙ্গিসের।

এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো কথা বলেননি অভিযুক্ত ফুটবলারদের কেউ। এমনকি চিলির ফুটবল ফেডারেশনের পক্ষ থেকেও জানানো হয়নি কিছু। তবে জানা গেছে, খুব শিগগিরই দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর মার্টিন লাসার্তে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেবেন। এমনকি গুঞ্জন রয়েছে এ ছয় ফুটবলারকে দেশেও পাঠিয়ে দেয়া হতে পারে।

হোটেলে নারী ডাকার আগেও করোনাবিধি ভঙ্গের অপরাধ করেছেন ভিদালরা। বাইরে থেকে হেয়ার ড্রেসারকে হোটেলে ডেকে চুল কাটিয়েছিলেন ভিদাল ও মেডেল। যে কারণে দুজনকে ৩০ হাজার ডলার করে জরিমানাও করেছিল কনমেবল। এবার হোটেলে নারী ডাকার অপরাধে কী শাস্তি দেয়া হয় সেটিই দেখার।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!