মোল্লাহাটে বিরোধপূর্ণ দুটি পক্ষের সংঘর্ষে ১জন নিহত, ১৫ জন আহত

333

মোল্লাহাট(বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ মোল্লাহাটে গত বুধবার উপজেলাধীন গাংনী ইউনিয়নের পুর্বগাংনীর রহমতপাড়া নামক স্থানে দির্ঘদিনের বিরোধপূর্ণ দুটি পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত ও ১৫জন আহত হয়েছে।

আহতদের কয়েকজন খুমেক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে এবং ২জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। জানাগেছে গত সোমবার ঈদের দিন ছোট শিশুদের খেলনা বেলুন কেনা নিয়ে একটি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উক্ত এলাকার মোস্তাফিজ মোল্লার পুত্র জসিম মোল্লা (২৩) কে একই গ্রামের বাদশা সরদারের নেতৃত্বে কয়েকজন মিলে মারপিট করে গুরুতর আহত করে। পরবর্তিতে তাকে মোল্লাহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়।

এ ঘটনায় গতকাল বুধবার মোল্লাহাট থানায় বাদশা সরদার সহ ১৫ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করে মোস্তাফিজ মোল্লা। মামলা করে বাড়ী ফিরলে বাদশা সরদার ও মোস্তাফিজ মোল্লার লোকেরা বেলা ৩টার দিকে দেশীয় ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে নতুন করে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১৫জন লোক আহত হয়েছে। গুরুতর আহতদের খুমেক হাসপাতালে নিলে বাদশা সরদারকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করে এবং আশঙ্কাজনক অবস্থায় মিঠু সেখ ও জুয়েল সেখ কে ঢাকা রেফার্ড করা হয়। আহত অন্যরা হলো ইউপি সদস্য ছবেদ সেখ (৪০) আবেদ সেখ(৩৮) রনি সেখ (২৫)।

নিহত বাদশা সরদারের লাশ ময়না তদন্ত শেষে আজ বিকালে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। এঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। বাগেরহাট পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায়, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীনুল আলম ছানা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাফ্ফারা তাসনীন, থানা অফিসার ইনচার্জ কাজী গোলাম কবির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং এলাকায় শান্তি বজায় রাখতে পর্যাপ্ত পুলিশ মোতয়েন করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!