ময়মনসিংহের নান্দাইল পৌরসভার পূর্ণ নির্বাচনের দাবী পরাজিত প্রার্থী পিকুলের

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ

302

ময়মনসিংহের নান্দাইল পৌরসভা নির্বাচনে অনিয়ম, হুমকি, বলপ্রয়োগ ও ভোটের ফলাফল ছিনতাইয়ের অভিযোগ করে পুনরায় নির্বাচন চান বিএনপির পরাজিত মেয়র প্রার্থী এ এফ এম আজিজুল ইসলাম পিকুল। তিনি তাঁর প্রতিনিধির মাধ্যমে জ্যেষ্ঠ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিতভাবে এই দাবি জানিয়েছেন।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি নান্দাইল পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হযেছে। নির্বাচনে জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগের মেয়র পদপ্রার্থী রফিক উদ্দিন ভুইয়া।

নয়টি কারণ দেখিয়ে পুনরায় নির্বাচন চেয়েছেন বিএনপির পরাজিত মেয়র প্রার্থী। নির্বাচনের শুরু থেকেই আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ দিলেও ব্যবস্থা গ্রহণ না করা, স্থানীয় সংসদ সদস্য কর্তৃক আচরণবিধি লঙ্ঘন করে নির্বাচনি প্রচারে অংশগ্রহণ, উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন ও প্রতিশ্রুতি প্রদানসহ বিভিন্ন হুমকি দিলেও কর্তৃপক্ষের নির্লিপ্ততা, নৌকার প্রার্থী কর্তৃক ৩০টি নির্বাচনি অফিস, তোরণ নির্মাণ ও শোডাউনের অভিযোগ করলেও পদক্ষেপ না নেওয়া, নির্বাচনি প্রচারণায় অংশগ্রহণকারীদের প্রিজাইডিং, সহকারী প্রিজাইডিং ও পোলিং এজেন্ট নিয়োগ, দলীয় ক্যাডার ও সহকারী প্রিজাইডিং ও পোলিং এজেন্ট দিয়ে ভোটারদের ফিঙ্গার নিয়ে নৌকা প্রতীকে ভোট প্রদান, বিএনপি নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পুলিশ কর্তৃক এলাকা থেকে চলে যাওয়ার হুমকি ও ভীতি প্রদান, নির্বাচনের দিন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উপস্থিতেই ধানের শীষের এজেন্টদের শারীরিক হেনস্থা ও বের করে দেওয়ার চেষ্টা, নির্বাচন শেষে বিএনপির এজেন্টদের থারমাল প্রিন্ট না দেওয়া ও প্রিজাইডিং অফিসার কর্তৃক হুমকি প্রদান ও জোরপূর্বক দস্তখত নিয়ে বের করে দেওয়া, দুপুর দেড়টার পর স্থানীয় সংসদ সদস্যের সরাসরি হস্তক্ষেপ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ঠ সব কর্মকর্তাদের নিষ্ক্রিয় করে ফলাফলে প্রভাব খাটানো, নির্বাচন পরিচালনায় দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিবর্গ জনগণের আইনানুগ সাংবিধানিক ভোটের অধিকার রক্ষায় ব্যর্থ হযেছেন বলেও অভিযোগ করা হযেছে।

এসব অভিযোগের পর নির্বাচনে যে সব প্রিজাইডিং, সহকারী প্রিজাইডিং ও পোলিংদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ এবং আগামী সব নির্বাচনে তাদের কালো তালিকাভুক্ত করার দাবি জানানো হয়েছে। এ ছাড়া অনিয়ম ও ত্রুটিপূর্ণ বলপ্রয়োগ করে ভোটারদের ফিঙ্গার প্রদানের পর নৌকা প্রতীকের ভোট ডাকাতির মাধ্যমে সাজানো নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!