রংপুরে দুইবোনকে একাই হত্যার হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে রিফাতের জবানবন্দি

100

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, মমিনুল ইসলাম রিপন রংপুর।। রংপুরের নগরীর মধ্য গণেশপুর এলাকায় চাচাতো দুই বোনকে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে ঘাতক রিফাত। রোববার বিকেলে রংপুর কোতয়ালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্টেট আমলী আদালতের বিচারক দেলোয়ার হোসেনের কাছে সে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেট্রোপলিটন কোতয়ালি থানার ওসি আব্দুর রশিদ।

শুক্রবার দুপুরে নগরীর গনেশপুর এলাকা থেকে সুমাইয়া আক্তার মীমের (১৬) মরদেহ ঘরের ভেতর ফ্যানের সঙ্গে ঝুলানো অবস্থায় এবং তার চাচাতো বোন জান্নাতুল মাওয়ার (১৪) মরদেহ গলায় বেøট দিয়ে কাটা অবস্থায় মেঝেতে পরে থাকা অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় শনিবার সকালে নিহত জান্নাতুল মাওয়ার বাবা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ ওই রাতেই নগরীর উত্তর বাবুখা এলাকা থেকে এমদাদুল ইসলামের পুত্র মুলাটোল মদিনাতুল মাদ্রাসার আলিম প্রথম বর্ষের ছাত্র মাহফুজার রহমান রিফাত নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রোববার বিকেলে তাকে আদালতে নেয়া সে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেন।

সূত্র জানায় বড়বোন মীমের সাথে রিফাতের প্রেম ঘটিত সম্পর্ক ছিল। ঘটনার রাতে বাড়িতে কেউ না থাকায় ছোটবোন জান্নাতুলকে নিয়ে এক সাথে শোয় তারা। রাতে কোন এক সময়ে রিফাত ঘরে প্রবেশ করে মীমের সাথে ঘনিষ্ট হওয়ার চেষ্টা করে। এসময় ছোট বোন জান্নাতুল তাদের দেখে ফেললে রিফাত প্রথমে জান্নাতুলকে গলাকেটে হত্যা করে। পরে মীমকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে রাখে।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!