রংপুরে পাঁচ দফা দাবিতে বেরোবি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

রংপুর প্রতিনিধি।।

51

বর্তমান পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ পাঁচ দফা দাবিতে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) সকাল ১১ টায় বেরোবি মূল ফটকের সামনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পোষ্টার হাতে নিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীরা ।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের ঘন্টাব্যাপী এই মানববন্ধনের পাঁচ দফা দাবিগুলো -অতিদ্রুত সকল বিভাগের সেশনজট নিরসন, দ্রুত অনলাইন ক্লাস চালু, সকল বিভাগের আটকে থাকা ফলাফলগুলো প্রকাশ, শিক্ষার্থীদের পতিতা, হকার ও কুলাঙ্গার বলা চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী খোরশেদ আলমকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা ও স্থায়ী বহিষ্কার , স্বাস্থ্যবিধি মেনে আটকে থাকা অষ্টম সেমিস্টার বা মাস্টার্স এর ফাইনাল পরীক্ষাগুলো নেয়া ।

মানববন্ধনের বক্তব্যে মাহমুদ মিলন বলেন- ক্যাম্পাসের তৃতীয় শ্রেণীর একজন কর্মচারী যখন শিক্ষার্থীদের হকার, পতিতা ও কুলাঙ্গার বলে গালি দেন তখন বুঝতে বাকি নেই আমাদের অবস্থান আজ কোথায় ? বলে তিনি প্রশ্ন তুলেন?তিনি বলেন-আজ আমরা বেরোবিয়ানরা এই কর্মচারীকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করলাম । এ সময় তিনি সকলকে তাদের অধিকার সম্পর্কে এবং অধিকার আদায় সম্পর্কে আরও সোচ্চার হতে বলেন ।এছাড়াও সেখানে অন্যান্য অনেক বিভাগের শিক্ষার্থীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বক্তব্য প্রদান করেন ।

মানববন্ধনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা জানান যে-খোরশেদ আলম সকল শিক্ষার্থীদের অনুভূতি তে আঘাত করেছেন। যদি প্রশাসন উক্ত কর্মচারীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার না করেন তবে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারিও দেন তারা ।

উল্লেখ্য, এই বছরের মাঝামাঝি সময়ে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারী খোরশেদ আলম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে বেরোবির শিক্ষার্থীদের পতিতা, হকার ও কুলাঙ্গার বলে গালি দিয়ে একটি পোষ্ট করেন । জিজ্ঞেসকালে তিনি উপাচার্যকে অবিহিত করে এই পোস্ট করেন বলে জানান ।তারপর থেকেই শিক্ষার্থীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, মানববন্ধন ইত্যাদির মাধ্যমে বিভিন্নভাবে নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে আসছেন ।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!